শিরোনাম :

বরিশালে পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ


বৃহস্পতিবার, ২ জুন ২০১৬, ০৬:৪৮ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বরিশালে পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ

বরিশাল প্রতিনিধি: দু’জনকে আটকের জের ধরে রাস্তা ব্যারিকেড দিয়ে পুলিশের ওপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেছে স্থানীয় কয়েক’শ নারীরা। ইটের আঘাতে এক সাংবাদিক আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১দিকে জেলার গৌরনদী পৌর এলাকার টরকীরচর এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, টরকীরচরের স্থায়ী বেঁদে পল্লীর শতাধিক গৃহে বিদ্যুতের লাইনের জন্য ওই পল্লীর বাসিন্দারা দীর্ঘদিন থেকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে দাবি করে আসছিলো।

তারই প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে পল্লী বিদ্যুতের কর্মীরা নতুন লাইন নির্মাণের কাজ করতে যান। এসময় তাদের কাজে স্থানীয় রিপন শরীফ ও কার্তিক চন্দ্রের নেতৃত্বে স্থানীয় শত শত নারীরা বাঁধা প্রদান করে।

একপর্যায়ে লাইনম্যানদের ব্যবহৃত দুটি মোটরসাইকেল আটক করে রাখা হয়। খবর পেয়ে বেলা ১২ টার দিকে থানার ওসি মো. আলাউদ্দিন মিলনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে ওই নারীরা বিক্ষোভ করতে থাকে।

পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে চেষ্ঠা চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে দুপুর দুইটার দিকে রিপন শরীফ ও কার্তিক চন্দ্রকে আটক করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উত্তেজিত নারীরা রাস্তায় গাছের গুড়ি ফেলে ব্যারিকেট দিয়ে আটককৃতদের ছিনিয়ে নেয়ার জন্য পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করতে থাকে। এসময় ইটের আঘাতে স্থানীয় সাংবাদিক মিজান সরদার আহত হয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থায়ী বেঁদে পল্লীর একাধিক বাসিন্দারা জানান, তাদের অবজ্ঞা করার কারণেই এক প্রভাবশালী পৌর কাউন্সিলরের নির্দেশে তার সহযোগী রিপন শরীফ ও কার্তিক চন্দ্র তাদের বেঁদে পল্লীতে বিদ্যুত লাইন আনতে বাঁধা প্রদান করেছেন। অথচ নির্বাচনের সময় ভোটের জন্য তাদের পল্লীর ভোটারদের ব্যাপক চাহিদা বেড়ে যায়।

ওই বাসিন্দারা আরও জানান, ওই পৌর কাউন্সিলরের দাবিকৃত মোটা অংকের টাকা না দেয়ার কারণেই নাটকীয়ভাবে এ ঘটনা ঘটেছে।

গৌরনদী মডেল থানার চৌকস ওসি মো. আলাউদ্দিন মিলন বলেন, আটককৃতদের থানা নিয়ে আসা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় সংসদ সদস্যর সাথে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এসএ/এমকে

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন