শিরোনাম :

আগৈলঝাড়ার কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে আটক ২


রবিবার, ৬ আগস্ট ২০১৭, ০৭:২৭ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বরিশাল প্রতিনিধি: চেতনানাশক দ্রব্য খাইয়ে অজ্ঞান করে এক কলেজ ছাত্রীকে প্রেমিক কর্তৃক ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই ছাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্তর বাবা-মাকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, আগৈলঝাড়া উপজেলার গৈলা ইউনিয়নের কালুপাড়া গ্রামের বাসিন্দা ও বরিশাল মহিলা কলেজের অনার্স পড়ুয়া ওই ছাত্রীর সাথে গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর ইউনিয়নের বাকাই গ্রামের রাজ্জাক আকনের পুত্র রিফাত আকনের (২২) প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

এর সূত্রধরে রিফাত বিয়ের কথা বলে ওই ছাত্রীকে শনিবার বিকেলে মাদারীপুরের মাইচপাড়ার গ্রামের একটি বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে ওই ছাত্রীকে চেতনানাশক ওষুধ খাইয়ে অচেতন করে রিফাত আকন ধর্ষণ করেন। পরে ওই ছাত্রী গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে রিফাত ও তার বন্ধুরা ধর্ষিতাকে কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে পালিয়ে যায়। পরে রিফাতের বাবা ও মা ঘটনা জানতে ওই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গেলে কালকিনি থানা পুলিশ তাদের আটক করেন।

কালকিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) একরামুল ইসলাম বলেন, ‘হাসপাতালে তাকে অচেতন অবস্থায় পেয়েছি। তাকে চেতনানাশক কোনো ওষুধ খাওয়ানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ওই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। তার প্রাথমিক চিকিৎসা চলছে।’

কালকিনি থানার ওসি কৃপাসিন্ধু বালা বলেন, রিফাতের বাবা ও মাকে আটক করা হয়েছে। ছাত্রীর পরিবার অভিযোগ দায়ের করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন