শিরোনাম :

ষোড়শ সংশোধনী রায় বাতিল করায় তারানার ক্ষোভ


সোমবার, ১৪ আগস্ট ২০১৭, ০৪:৫৫ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ষোড়শ সংশোধনী রায় বাতিল করায় তারানার ক্ষোভ

বরিশাল প্রতিনিধি: ষোড়শ সংশোধনী রায় বাতিল করায় আমরা সংক্ষুদ্ধ। দেশের জনগণ এ সংশোধনী মেনে নেবেনা। একটি যুদ্ধ বিধ্বস্থ দেশকে টেনে নিয়ে দেশকে পুনরায় পূর্নবাসন করেছিলেন বঙ্গবন্ধু। তিনি ছিলেন একজন সফল রাস্ট্র নায়ক।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ১১ মাসের মাথায় বাংলাদেশকে দিয়েছিলেন একটি নিজস্ব সংবিধান বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মাধ্যমে দেশবাসী হারিয়েছিলেন একজন স্বজন।

রবিবার রাতে অশ্বিনী কুমার টাউন হলে ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ২০১৭ শ্রদ্বা ও স্বরন উপলক্ষে বরিশাল বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত তিনদিন ব্যাপি অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী পর্বে মুখ্য আলোচনায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী ও কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি তারানা হালিম একথা বলেন।

বরিশাল বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতি জোটের সভাপতি নাট্যজন ব্যাক্তি সৈয়দ দুলালের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আরো ১৫ই আগষ্ঠের সেই ভয়াবহ কাল রাতের ঘটনা নিয়ে স্বৃতি চারণ করেন শহীদ শুকান্ত বাবুর গর্ভধারিনী মা সাহান আরা বেগম ।

সাহান আরা বেগম সেদিনের স্বৃতিৃচারণ করতে গিয়ে তার দু’চোখে জল এসে যায় কন্ঠের ভাষা বন্ধ হয়ে আসার কারনে তিনি আর বেশী কিছু বলতে চেয়েও বলতে পারেনি।

বঙ্গবন্ধুর জীবন গল্পের উপর আলোচনা করেন সাংস্কৃতিক ব্যাক্তি সিনিয়র সাংবাদিক ্এ্যাড. মানবেন্দ্র ব্যাটকবল।

অনুষ্ঠানে স্বগত বক্তব্য রাখেন স্নেহাংশু বিশ্বাষ।অনুষ্ঠানের ২য় পর্বের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বৃন্দ আবৃত্তি করেন বরিশাল নাটক নৃত্যানুষ্ঠান পরিবেশন করেন (প্রান্তিক সংগীত বিদ্যালয়) ও গীতি আলেখ্য পরিবেশন করেন বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম আরো বলেন াাজ যারা মানবাধীকারের কথা বলেন তাহলে সবার আগে ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ঠের কথা বলতে হবে।

বঙ্গবন্ধুর পরিবার সেদিনের বিচার ২১ বছরেও পায়নি তার পরিবার। জিয়াউর রহমান সেদিন বিচারের সব পথ রুদ্ধ করে রেখেছিলেন। আজ ষোড়শ সংশোধনীর রায়ের মাধ্যমে জাতির জনকের মান খুন্য করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন ষড়যন্ত্র করে কোন লাভ হবেনা। সময় এসেছে আমরা যেন রক্ত দিয়ে বঙ্গবন্ধু রক্তের ঋন শোধ করে যেতে পারি। বঙ্গবন্ধু এদেশের মানুষের মুক্তির জন্য তিনি ৪ হাজার ৪ শ’ ৮৪ দিন অন্ধকার কারাগারে জীবন কাটিয়েছিলেন।

এছাড়া অনুষ্ঠানের মঞ্চে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কবিতা আবৃতি করেন ঢাকা থেকে আগত নাট্যব্যাক্তি মুনিরা বেগম মিম। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন টিভি ও মঞ্চ ব্যাক্তি তমালিকা কর্মকার ও চলচিত্র নায়িকা রোজিনা।

এরপূর্বে মঞ্চে রক্ষিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃর্তিতে পুষ্পার্ঘ অর্পন করেন ডাক ও টেলি যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম,সাহান আরা বেগম, রোজিনা, তারানা হালিম, তমালিকা কর্মকার।

১৫ আগষ্ঠ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে দর্শক শারিতে বসে আমন্ত্রিত অতিথিদের কথা শোনেন বরিশাল সদর সংসদ সদস্য জেবুন্নেছা আফরোজ,সংসদ সদস্য এ্যাড. তালুকদার মো. ইউনুস, সাবেক সংসদ সদস্য মনিরুল ইসলাম মনি, মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি গেলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল, সাধারন সম্পাদক এ্যাড. একেএম জাহাঙ্গির সহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিবর্গ।

এসএ

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন