শিরোনাম :

বরিশাল আদালতের বেঞ্চ সহকারি যখন বিচারক!


বৃহস্পতিবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৭, ০৪:১১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

শামীম আহমেদ, বরিশাল: আদালতে দায়ের করা মামলায় বিচারকের আদেশের অপেক্ষা না করেই বেঞ্চ সহকারি নিজেই আদেশ দিয়েছেন। বরিশালের প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারি সাইফুল ইসলাম নিজ আদেশে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব ও পুলিশের আইজিপিসহ মামলার ১০ জন বিবাদীকে নোটিশ পাঠানোর ঘটনায় পুরো আদালত পাড়ায় ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে চাকরি থেকে বরখাস্ত করার অভিযোগে গত ৫ অক্টোবর বরিশালের প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনাল আদালতে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্য (কনস্টবল নং ৮০৯) জসিম উদ্দিন বাদি হয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি), বরিশাল রেঞ্জ ডিআইডি, আরআরএফ’র কমান্ড্যান্ট (পুলিশ সুপার), আরআই, রেশন স্টোরের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, পোশাক ভান্ডারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, আরআরএফ অফিসের প্রধান সহকারী ও হিসাব রক্ষকসহ দশজনকে বিবাদী করে একটি নালিশি মামলা দায়ের করেন।

প্রশাসনিক ট্রাইব্যুনালের ভারপ্রাপ্ত বিচারক সৈয়দ এনায়েত হোসেন মামলাটি শুনানীর জন্য আগামি ১ নভেম্বর আদেশের দিন ধার্য্য রাখেন। এরইমধ্যে গত ১১ অক্টোবর বিচারককে না জানিয়ে ওই আদালতে বেঞ্চ সহকারী সাইফুল ইসলাম নিজেই স্বাক্ষর করে মামলার বিবাদীদের বিরুদ্ধে ডাকযোগে নোটিশ জারি করেন।

বিষয়টি বুধবার বিকেলে শেষ কার্যদিবসে আইনজীবীদের মাধ্যমে পুরো আদালত পাড়ায় ছড়িয়ে পরলে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক আইনজীবীরা বলেন, বিশ্বস্ত সূত্রে তারা বিষয়টি জানতে পেরে সংশ্লিষ্ট আদালতের বিচারককে পুরোবিষয়টি অবহিত করেছেন। তারা আরও বলেন, বেঞ্চ সহকারী সাইফুল ইসলাম আদালতের বিচারকের আদেশের শুনানীর অপেক্ষা না করেই প্রতিপক্ষের কাছ থেকে লাভবান হয়ে নিজেই আদালতের বিচারক হয়ে মামলার আদেশ প্রদান করেছে। এ ঘটনায় আদালত কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিচ্ছেন বলেও সূত্রটি জানিয়েছেন।

আদালতে দাখিল করা নালিশি মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ৫ অক্টোবর কনস্টবল পদে চাকরি হয় জসিম উদ্দিনের। এরপর গত ১৮ মে ঘুষ বাণিজ্যের অভিযোগে তাকে সাময়ীক বরখাস্ত করা হয়েছে। কোন প্রকার কারণ দর্শানোর নোটিশ না দিয়ে সরাসরি বরখাস্ত করার আদেশের ওপর বরিশাল রেঞ্জ ডিআইজির কাছে আপিল করে পুলিশ সদস্য জসিম উদ্দিন। তার আপিলের কোন জবাব না পাওয়ায় তিনি প্রায় পাঁচ মাস ধরে সাময়িকভাবে বরখাস্ত হয়ে রয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য জসিম উদ্দিন স্বরাষ্ট্র সচিবসহ পুলিশের উর্ধ্বতন ১০ কর্মকর্তাকে বিবাদী করে আদালতে নালিশি মামলা দায়ের করেছিলেন।

 



 

 



এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন