শিরোনাম :

বরিশালে শুরু হচ্ছে ৭ দিন ব্যাপী আয়কর মেলা


মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৭, ০৩:২১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বরিশালে শুরু হচ্ছে ৭ দিন ব্যাপী আয়কর মেলা

বরিশাল প্রতিনিধি: আগামীকাল ১লা নভেম্বর থেকে ৭ই নভেম্বর পর্যন্ত বরিশালে শুরু হচ্ছে ৭ দিন ব্যাপী আয়কর মেলা। বিভাগের ৬ জেলা শহর ও ৫ উপজেলায় এর মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

বরিশালে আয়কর মেলা থেকে ৬ কোটি টাকা রাজস্ব কর আদায়ের টার্গেট নিয়েছে আয়কর বিভাগ।

এ উপলক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার বেলা সারে ১১ টায় কর অঞ্চল বরিশাল কর কমিশনারের কার্যালয়ে কীর্তন খোলা সংবাদ সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বরিশালের কর অঞ্চল প্রধান বরিশাল এর কর কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) মোহাম্মদ জাহিদ হাছান বলেন, ‘উদ্ভাবনে বাড়বে কর দেশ হবে স্বনির্ভর, সুখী স্বদেশ গড়তে আয়করের বিকল্প নাই’ এই শ্লোগান নিয়ে আগামিকাল ১ নভেম্বর থেকে ৭ নভেম্বর পর্যন্ত বিভাগীয় শহর বরিশাল নগরীর অশ্বিনী কুমার হলে অনুষ্ঠিত হবে আয় কর মেলা।

এরপরই ঝালকাঠী, পিরোজপুর, বরগুনা, ভোলা ও পটুয়াখালী জেলা শহরে ৪ দিন এবং কলাপাড়া, স্বরূপকাঠী, লালমোহন, গলাচিপা আর নলছিটি উপজেলাতে ২ দিন ব্যাপী আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত মেলা খোলা থাকবে।

এর পাশাপাশি নভেম্বর মাসে নতুন আরো ৬টি উপজেলাতে আয়কর ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ৮ই নভেম্বর সেরা কর দাতাদের সম্মাননা দেয়ার আয়োজন করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরো বলেন, আয়কর দেয়া মানে দেশের উন্নয়নের স্বার্থে কাজ করা। একটি দেশ যখন এগিয়ে যায় তখন অনেক কিছুরই দরকার হয়। যা পুরোটাই জনগনকে দিতে হয় এই আয়করের মাধ্যমে। আয়কর দেয়া দেশের নাগরিকদের কর্তব্য। আমাদের দেশে ৮০লক্ষ করদাতাদের মধ্যে আমরা মাত্র ১৫লক্ষ করদাতাদের কাছ থেকে কর পাচ্ছি যার কারনে আমরা অনেকটা পিছিয়ে আছি।

আমাদের দেশে যে বড়লোক তার আরো বড় হতে হবে,অন্যদিকে যে গরীব তাকে আরো গরিব থাকতে হচ্ছে এই বৈষম্য দূর করার জন্য আয়কর ক্ষভাগ কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরো বলেন রাস্ট্র আপনাকে সকল সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে সেখানে আপনি রাস্ট্রকে কেন কর দিবেন না।ঋন নিয়ে কোন দেশ উন্নয়ন করা সম্ভবনা। আমাদের আয়করের টাকা দিয়ে দেশ উন্নয়ন করতে হবে তাহলে আমরা আগামী ৩০ সালে একটি উন্নশীল দেশে পরিনত হব।

তিনি আরো বলেন স্বেচ্ছায় স্বপ্রনিত হয়ে আপনি আপনার আয়করের টাকা নিবিঘ্নে আয়কর দেয়ার জন্য সরকার এই মেলার মাধ্যমে রাজস্ব আয়কর দেয়ার ব্যাস্থা করেছেন।

বরাবরের মতো এবারের আয়কর মেলায় নতুন করদাতাদের জন্য ১২টি ভিজিট টি.আই.এন রেজিস্ট্রেশনের ব্যাবস্থা সহ পুরাতন করদাতাদের জন্য টি.আই.এন-রেজিস্ট্রেশন ব্যাবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। আয়কর রিটার্ন ফরম এবং সিটিজেন চার্টার সরবরাহ,আয়কর রিটার্ন জমা দেয়ার ব্যাবস্থা থাকবে মেলায়।

এছাড়া মেলায় তাৎক্ষনিক প্রাপ্তিস্বীকার পত্র প্রদান, হেল্প ডেস্ক থেকে এর মাধ্যমে করদাতাদের সহায়তা প্রদান, অধিক্ষেত্র অনুযায়ী আয়কর রিটার্ন জমা দানে সহায়তা প্রদান, ই-পেমেন্টে এর মাধ্যমে আয়কর প্রদানের সুবিধা থাকবে। অনলাইনের মাধ্যমে রিটান দাখিল করার সর্ম্পকিত প্রাথমিক ধারনা দেয়া ও পাসওয়ার্ড প্রদান, অনলাইনে রিটার্ন দাখিলের ব্যাবস্থাও রয়েছে।

মেলা প্রাঙ্গনে আরো করদাতাদের সুবিদার জন্য রয়েছে৭মেডিকেল বুথ সহ সোনালী ব্যাংক ও জনতা ব্যাংকের দুটি অস্থায়ী বুথ থাকবে যাতে করে করদাতারা আয়করের টাকা পরিশোধ করতে পারবেন।

এ বছরের অনুষ্ঠিতব্য ১১টি মেলা থেকে রিটার্নের লক্ষমাত্রা রয়েছে ৮হাজার, সেই সাথে ৬ কোটি টাকা রাজস্ব আয়কর আদায় এবং নতুন করে ১৫শত কর দাতা সৃস্টির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে কর অঞ্চল-বরিশাল সহকারী কর কমিশনার মোঃ মেহেদী মাসুদ ফয়সাল জানান, আগামীকাল থেকে ৭ নভেম্বর পর্যন্ত ৭ দিন বরিশালের অশ্বিনী কুমার হলে মেলা অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ২ নভেম্বর থেকে থেকে ৫ নভেম্বর পর্যন্ত ঝালকাঠী, ভোলা ও পিরোজপুরে, ৩ থেকে ৬ নভেম্বর পটুয়াখালী ও ৪ থেকে ৭ নভেম্বর বরগুনা জেলা শহরে মেলা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া, ২ ও ৩ নভেম্বর পটুয়াখালীর কলাপাড়া, ৪ ও ৫ নভেম্বর পিরোজপুরের সরূপাকাঠী, ৬ ও ৭ নভেম্বর ঝালকাঠীর নলছিটি, পটুয়াখালীর গলাপচিপা এবং ভোলার লালমোহনে মেলা অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, কর অঞ্চল বরিশাল’র যুগ্ন কর কমিশনার আবুুল বাসার আকন,সহকারী কর কমিশনার বিদ্যুৎ সিকদার, উপ কর কমিশনার আনন্দ কুমার সাহা, বরিশাল কাস্টম্স এক্যাইজড ভ্যাট এর সহকারী কমিশনার মো. নেয়ামুল ইসলাম ও সঞ্চয় অধিদপ্তর বরিশাল এর উপ-পরিচালক মো. এনায়েত হোসেন।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন