শিরোনাম :

দখল,দূষণে মুখ থুবড়ে পড়েছে ভারানি খাল


রবিবার, ২৫ নভেম্বর ২০১৮, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

দখল,দূষণে মুখ থুবড়ে পড়েছে ভারানি খাল

বরগুনা: দখল,দূষণ ও প্রশাসনের নজরদারির অভাবে নিশ্চিহ্ন হওয়ার পথে বরগুনার ভারানি খাল। নৌপথে পণ্য পরিবহনে এক সময় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখলেও নৌ-রুটটি এখন ভোগান্তির নাম। দীর্ঘদিন আন্দোলন হয়েছে, দখল মুক্ত করার প্রশাসনের বিভিন্ন কার্যক্রমও মুখ থুবড়ে পড়েছে বারবার। সচেতন মহল বলছে, কালো টাকার প্রভাবে থমকে আছে উচ্ছেদ অভিযান। তবে প্রশাসন বলছে, দখলমুক্তে শিগগিরই শুরু হবে অভিযান।

উপজেলা ও আশপাশের জেলা থেকে বিভিন্ন পণ্য নিয়ে বরগুনার খাকদোন নদী থেকে নৌযান খুব সহজে পায়রা নদীতে যেতে পারতো বলে এই খালটির নাম ভারানির খাল। এখন পণ্য ভর্তি নৌযান আটকে থাকার চিত্র প্রতিদিনের। ঘন্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষায় থাকতে হয় জোয়ারের। আগের মাত্র ২ থেকে ৩ ঘন্টার পথ এখন অতিক্রম করতে লাগে এক থেকে দেড় দিন।

বাঁশ,খুঁটি আর সিমেন্টের পাইল বসিয়ে খালটির মাঝ পর্যন্ত দখলে নেয়ায় কমেছে খালটির প্রস্থ ফলে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে পানি প্রবাহ। এতে পলি পরে ভরাট হচ্ছে দিন দিন। আর পৌর শহরের বর্জ্য নির্দিষ্ট স্থান বা ডাস্টবিনে নয় ফেলা হচ্ছে এই খালেই। ভরাটের সাথে সাথে দুষিত হচ্ছে পানি নৌযান চালক ও স্থানীয়রা বলেন, 'খালের সব জায়গায় ময়লা ফেলার কারণে ভরাট হয়ে যাচ্ছে। পরিবেশ ও পানি নষ্ট হচ্ছে।'

দখল ও দূষণ রোধে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন করে আসা ব্যক্তিরা বলছেন, আগে প্রশাসন খালটি দখল মুক্ত করার ব্যাপারে সচেতন থাকলেও এখন উদাসীন। অভিযোগ রয়েছে এক আওয়ামী লীগ নেতার টাকার বিনিময়ে প্রশাসন ম্যানেজেরও।

বাংলাদেশ নদী পরিব্রাজক দলের বরগুনা শাখার সভাপতি সোহেল হাফিজ বলেন, 'জেলা প্রশাসক চলে যাওয়ার পরেই খাল ভরাট আবার শুরু হয়েছে।'

খাল দখল মুক্তকরণ আন্দোলনের সদস্য জাকির হোসেন মিরাজ বলেন, 'অবৈধ ভাবে রাজস্ব বিভাগের কিছু মানুষ খালের দুই পারে অবৈধ স্থাপনা বসাতে সাহায্য করেছে।'

অবশ্য পৌর মেয়রের দাবি বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় কোন ঘাটতি নেই,ময়লা ফেলাটা অসচেতনতা। তবে নতুন জেলা প্রশাসকের দাবি, নতুন প্রকল্পের মাধ্যমে ডিসেম্বর বা জানুয়ারির মধ্যে খাল শুধু দখল মুক্তই নয়, করা হবে এর সৌন্দর্য বর্ধনও। জেলা প্রশাসক কবির মাহমুদ বলেন, 'জানুয়ারির মধ্যে এই খালের সংস্কার শুরু হবে।'

বরগুনা পৌরসভার উপর দিয়ে প্রবাহিত পায়রা থেকে খাকদোন নদী পর্যন্ত এ ভারানি খালের দৈর্ঘ্য প্রায় ৭ কিলোমিটার।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন