শিরোনাম :

‘মিতুর শরীরে ৮টি কোপ, বাম চোখের ওপরে গুলির চিহ্ন’


রবিবার, ৫ জুন ২০১৬, ০৬:২৩ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

‘মিতুর শরীরে ৮টি কোপ, বাম চোখের ওপরে গুলির চিহ্ন’

চট্টগ্রাম অফিস: চট্টগ্রামে নিহত পুলিশ সুপার (এসপি) বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু’র শরীরে ধারালো অস্ত্রের আটটি কোপের চিহ্ন এবং বাম চোখের ওপরে গুলির চিহ্ন রয়েছে বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা। প্রাথমিক ময়নাতদন্ত শেষে চিকিৎসকরা নিশ্চিত করেছেন ধারালো অস্ত্রের আঘাতের পরও গুলি করে মিতুর মৃত্যু নিশ্চিত করেছে দুর্বৃত্তরা।

সুরতহাল করা চিকিৎসকের উদ্বৃতি দিয়ে রোববার দুপুরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের জরুরী বিভাগের সামনে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) পরিদর্শক মো. কবির সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, মাথার বাম ও ডান পাশে আঘাত করা হয়েছে ছুরি দিয়ে। বুকের মাঝখানে, কাঁধে, হাতের কনুই ও পিঠের মাঝখানেও রয়েছে বড় ছুরিকাঘাতের চিহ্ন। এরকম ৮টি ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে পুরো শরীরে জুড়ে। এছাড়া মাথার বাম পাশে করা হয়েছে গুলিও।

সিএমপি পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) পরিতোষ ঘোষ বলেন, প্রথমে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পরে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে মাহমুদা খানমকে। ঘটনাস্থল থেকে অব্যবহৃত তিনটি বুলেট উদ্ধার করা হয়। এগুলো ৭.৬৫ বোর পিস্তলের গুলি হতে পারে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, হত্যাকারীরা খুব কাছ থেকে গুলি করেছে।

কারা এই হত্যাকাণ্ডে জড়িত পুলিশ তা এখনো জানাতে পারেনি। তবে জঙ্গি গোষ্ঠী জড়িত থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ।

রোববার সকাল পৌনে ৭টার দিকে পাঁচলাইশ থানার জিইসি ওয়েল ফুড এর সামনে ছেলেকে স্কুল দিতে যাওয়ার পথে খুন হন মাহমুদা খানম।

ঘটনার পর র‌্যাব নগরীর দামপাড়া কুসুমবাগ আবাসিক এলাকা থেকে দুইজনকে আটক করেছে বলে জানাগেছে। আটককৃত দুইজন ওয়েল ফুড সেন্টারের নিরাপত্তা রক্ষী এবং তার ভাই। তবে তাদের নাম জানা যায়নি।

এসআই/এমএল

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন