শিরোনাম :
   জাগো বাংলাতে সাংবাদিকতায় চাকরির সুযোগ    ইরানকে নিয়ে সমালোচনার কড়া জবাব দিলেন হাসান রুহানি    রোহিঙ্গা সংকট: নিরাপত্তা পরিষদকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান    সু চিকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে ফৌজদারি আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর সুপারিশ    আজকের রাশিফল: ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার, ২০১৭    নিজেদের মাঠে বেটিসের কাছে হেরে গেল রিয়াল মাদ্রিদ    মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত: জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান    রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ২৬২ কোটি টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র    রোহিঙ্গা হত্যার প্রতিবাদে বরিশালে ধ্রুবতারার মানববন্ধন অনুষ্ঠিত    সাপাহারে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তাগুলো  দ্রুত সংস্কারের দাবী এলাকাবাসীর 

ধান ক্ষেত থেকে উদ্ধার মস্তক বিহীন লাশের পরিচয় মিলেছে


রবিবার, ২০ আগস্ট ২০১৭, ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ধান ক্ষেত থেকে উদ্ধার মস্তক বিহীন লাশের পরিচয় মিলেছে

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীর ধান ক্ষেত থেকে উদ্ধার মস্তক বিহীন অজ্ঞাতরামা লাশের পরিচয় মিলেছে।হতভাগার নাম মোজাহের মিয়া (৩৫)। তিনি পার্বত্য জেলা বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাসিয়াখালীর রঙ্গারঝিরি এলাকার নুর মোহাম্মদের ছেলে।পেশায় তিনি রাবার ব্যবসায়ী।

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পাওয়া ছবিতে পরনের শার্ট, প্যান্ট, পকেটে থাকা টুপি, পায়ের সেন্ডেল দেখে পরিচয় নিশ্চিত করেছেন স্ত্রী সাবেকুন নাহার।শনিবার রাত দশটার দিকে মুঠোফোনে স্ত্রীর বরাতে নিহতের নিকটাত্নীয় ও সদরের ইসলামপুর ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুশ শুক্কুর এ খবর জানিয়েছেন।মোজাহের মিয়ার শ্বশুর বাড়ী খুটাখালী কচ্ছপিয়া এলাকায়।

স্ত্রী সাবেকুন নাহার জানিয়েছেন, তার স্বামী রাবার ব্যবসার টাকা তুলতে বৃহস্পতিবার বাড়ী থেকে বের হন।ব্যবসার পাশাপাশি তিনি তাবলীগের চিল্লায়ও যেতেন।এ কারণে পকেটে সমসময় টুপি রাখতেন।তার কোন শত্রুও ছিলনা।কি কারণে এভাবে নির্দয়ভাবে খুন করা হয়েছে তা কেউ জানাতে পারছেনা।

শুক্রবার (১৮আগস্ট) ভোরে খুটাখালী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড বালুরচর এলাকার চলাচল সড়কের পার্শ্ববর্তী ধান ক্ষেতে অভাগা মোজাহের মিয়ার মস্তক বিহীন লাশটি পাওয়া যায়।খবর পেয়ে খুটাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুর রহমান সরেজমিনে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।খবর দেন খানা পুলিশকে।পরে পরিচয় শনাক্ত করতে পেরে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয়া হয়।শনিবার সকালে জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে নিহতের ময়নাতদন্ত শেষে আঞ্জুমানে মুফিদুল ইসলামের মাধ্যমে ‘বেওয়ারিশ’ হিসেবে দাফন করা হয়েছে।বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আর.এম.ও) ডাক্তার মোহাম্মদ শাহীন আবদুর রহমান চৌধুরী।

আইকে

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন