শিরোনাম :
   জাগো বাংলাতে সাংবাদিকতায় চাকরির সুযোগ    ইরানকে নিয়ে সমালোচনার কড়া জবাব দিলেন হাসান রুহানি    রোহিঙ্গা সংকট: নিরাপত্তা পরিষদকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান    সু চিকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে ফৌজদারি আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর সুপারিশ    আজকের রাশিফল: ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার, ২০১৭    নিজেদের মাঠে বেটিসের কাছে হেরে গেল রিয়াল মাদ্রিদ    মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত: জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান    রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ২৬২ কোটি টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র    রোহিঙ্গা হত্যার প্রতিবাদে বরিশালে ধ্রুবতারার মানববন্ধন অনুষ্ঠিত    সাপাহারে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তাগুলো  দ্রুত সংস্কারের দাবী এলাকাবাসীর 

৪৬ হাজার ইয়াবার চালানসহ ৩ পাচারকারী ধরিয়ে দিলেন সাংবাদিক


শুক্রবার, ২৫ আগস্ট ২০১৭, ০১:৩০ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

৪৬ হাজার ইয়াবার চালানসহ ৩ পাচারকারী ধরিয়ে দিলেন সাংবাদিক

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের উখিয়া থেকে ১ কোটি ৩২ লাখ টাকা মূল্যের ৪৬ হাজার ইয়াবা পাচারের সময় পুলিশে ধরিয়ে দিলেন যমুনা টিভির কক্সবাজারস্থ স্টাফ রিপোর্টার ইমরুল কায়েস চৌধুরী। একই সঙ্গে ইয়াবা পাচারে ব্যবহৃত পিকআপসহ ৩ পারচারকারীকেও পুলিশের হাতে তুলে দেন তিনি।

শুক্রবার দিবাগত রাত ১টার দিকে উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়া এলাকায় একটি পিক-আপ ভ্যানা তল্লাশি করে এসব ইয়াবাসহ তাদের আটক করা হয়।আটকৃতরা হলেন, টেকনাফ উপজেলার নাইমপাড়া এলাকার মো. কাসিমের ছেলে মো. মুন্না (২০), রামু উপজেলার টুয়াইগ্যাকাটা এলাকার মৃত ইদ্রিসের ছেলে মো. সাগর (২১) ও টেকনাফের মুরাপাড়া এলাকার মো. কাশেমের ছেলে মো. আব্দুল্লাহ (১৯)।

ইমরুল কায়েস জানিয়েছেন, উখিয়া নিজ বাড়ির সামনে দিয়ে নাম্বারবিহীন একটি পিকআপ লাইট বন্ধ করে যাওয়ার চেষ্টা করছিল। গাড়ির যাত্রীদের আচরণে তার সন্দেহ হলে তিনি স্থানীয়দের সহযোগিতায় গাড়িসহ ৩ আরোহীকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেন। পুলিশ গাড়ি তল্লাশি করে ৪৬ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে।

উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, সাংবাদিক ইমরুল কায়েসের বাসার সামনে একটি পিক আপ ভ্যানে ইয়াবা আছে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। পরে পিক আস ভ্যানটি তল্লাশি করে ৪৬ হাজার পিস ইয়াবাসহ পাচারের সময় ৩ পাচারকারীকে আটক করা হয়। এসব ইয়াবার আনুমানিক মূল্য ১ কোটি ৩২ লাখ টাকা। ওসি বলেন, আটক তিন জনকে মাদকদ্রব্য আইনে মামলা রুজু করে আদালতে পাঠানো হবে।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল বলেন, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টায় ইমরুল কায়েস চৌধুরী একটি গাড়িতে বিপুল ইয়াবা আটকের খবর দেন। তার ফোন পেয়ে আমি দ্রুত উখিয়া থানার ওসি আবুল খায়েরকে ঘটনাস্থলে পাঠাই।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ কে এম ইকবাল হোসেন জানান, সাংবাদিক ইমরুল কায়েস বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ পাচারকারীদের ধরিয়ে দিয়ে দৃষ্টান্ত তৈরী করেছেন। সমাজের প্রতিটি পেশার মানুষ ইয়াবা ও মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হন তাহলে দেশ থেকে ইয়াবা নির্মূল করা সম্ভব হবে।
উল্লেখ্য, সাংবাদিক ইমরুল কায়েস চৌধুরী উখিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা মাহমুদুল হক চৌধুরীর ছেলে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন