শিরোনাম :

তিন বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে বিজিপি


রবিবার, ১৪ জুলাই ২০১৯, ০৫:০২ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

তিন বাংলাদেশিকে অপহরণ করেছে বিজিপি

কক্সবাজার: টেকনাফে নাফ নদী থেকে হোয়াইক্যং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক ছাত্র ও দুই যুবককে অপহরণ করেছে মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)। গত ১২ই জুলাই (শুক্রবার) সকালে হোয়াইক্যং পয়েন্টের নাফ নদী থেকে অপহরণ করা হয়।

অপহৃতরা হলো, হোয়াইক্যং উত্তরপাড়ার মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের ছেলে মো. জুনায়েদ (১০), মৃত জালাল আহমদের ছেলে সিরাজ উল্লাহ (২৬) ও মনিরঘোনা এলাকার আবদুল জলিলের ছেলে মোহাম্মদ রুবেল (২৪)। এর মধ্যে সিরাজ ও রুবেল পেশায় জেলে বলে জানা গেছে।

পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, প্যারাবনের কেওড়া ফলের জন্য নৌকাযোগে নাফ নদীতে গমন করে ওই তিনজন। এ ফলের সন্ধানে গিয়ে ভুলবশতঃ বাংলাদেশের জলসীমা অতিক্রম করলে মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) এর প্রায় ১০-১৫ জনের একটি দল বোটযোগে নাফ নদে এসে তুতার দ্বীপ থেকে তাদের ধরে নিয়ে মিয়ানমারের ওপারে চলে যায়।

এদিকে চতুর্থ শ্রেণি পড়ুয়া মো. জুনায়েদ অপহরণের খবর বাড়িতে পৌঁছালে তার মা মমতাজ বেগম পুত্রশোকে দিশেহারা হয়ে যান। কেঁদে কেঁদে বারবার মুর্ছা যাচ্ছেন। মমতাজ বেগম বলেন, কোনো দিন নাফ নদীতে পা রাখেনি ছেলে আমার, কেওড়া ফলের জন্য নাফ নদীতে গেলে মিয়ানমার পুলিশ তাদের অপহরণ করে।

ছেলের পিতা গিয়াস উদ্দিন জানান, যারা ওপারে মাছ শিকার করে তাদের মাধ্যমে অপহরণের খবরটি পেয়ে বেশ কিছু সময় যোগাযোগ করেছিলাম। কিন্তু কোনো সুরাহা করতে না পেরে দ্রুত ২ বিজিবি বরাবর আবেদন করা হয়।

হোয়াইক্যং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ইলিয়াছ জানান, মোহাম্মদ জোনায়েদ চতুর্থ শ্রেণির বি শাখার নিয়মিত ছাত্র।

তার রোল নং ৪০। শিশুটিকে ফিরিয়ে আনতে সংশ্লিষ্টদের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তিনি।

হোয়াইক্যং বিওপির কোম্পানী কমান্ডার আলী মোর্তেজা জানান, নাফ নদী থেকে তিনজন ব্যক্তি ধরে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে প্রতিবাদপত্র পাঠানো হয়েছে। তাদের উত্তরের অপেক্ষায় রয়েছে বলেও জানান তিনি।

টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্ণেল মোহাম্মদ ফয়সাল হাসান খান নাফ নদী থেকে শিশুসহ তিন জনকে ধরে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তারা বাংলাদেশের জলসীমা অতিক্রম করায় এ ঘটনা ঘটেছে। পাশাপাশি তাদের ছাড়িয়ে আনতে ব্যাটালিয়নের পক্ষ থেকে বার্তা পাঠানো হয়েছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন