শিরোনাম :
ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা

শহীদ মিনার এলাকায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা 


মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৫:৫৮ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

শহীদ মিনার এলাকায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা 

ডেস্ক প্রতিবেদন: মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন উপলক্ষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আলপনা আঁকা, দেয়াল লিখন, মঞ্চ সাজানোসহ চলছে শেষ মুহূর্তের যাবতীয় কাজ।

মঙ্গলবার সকাল থেকে শহীদ মিনার এলাকার চারপাশে চারটি ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন চলাচল সীমিত করেছে পুলিশ। পুরো এলাকা ক্লোজ সার্কিট (সিসি টিভি) ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। বসানো হয়েছে র‍্যাব ও পুলিশের আর্চওয়ে। বসানো হয়েছে পুলিশ, র‍্যাব ও ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষ। পোশাক ও সাদা পোশাকে সর্বক্ষণ পাহারায় রয়েছে র‍্যাব-পুলিশের সদস্যরা।

এদিকে কড়া এই নিরাপত্তা ব্যবস্থা এবং শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ দিয়ে গাড়ি চলতে না দেওয়ায় আশপাশের এলাকায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। তবে পথচারীরা ব্যারিকেড অতিক্রম করে চলাচল করতে পারছেন। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও তার আশপাশ এলাকায় ঘুরে এসব দেখা গেছে।

এদিকে শহীদ মিনার এলাকায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীরা সাতটি দলে ভাগ হয়ে আলপনা আঁকা শুরু করেছে বেলা ১১টা থেকে। তারা রাস্তার মোড়ে মোড়ে আলপনা আঁকছে।

টিএসসি থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের দিকে ঢুকতে একটি ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে। যেখান থেকে শুধু ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও সাংবাদিকদের গাড়ি ছাড়া আর কিছুই ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। এভাবে দোয়েল চত্বর, মেডিকেল গেট ও শহীদ মিনারের পশ্চিম পাশে একটি ব্যারিকেড দিয়ে যে কোনো ধরনের যানবাহন বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ।

টিএসসি থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের দিকে ঢুকতে যে ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে সেখানে দাঁড়িয়ে ছিলেন রমনা থানার উপপরিদর্শক রাসেল। তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তার স্বার্থে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে আমরা এই ব্যারিকেড দিয়েছি। তবে গাড়ি যেতে না দেওয়ায় হুমকি খেয়েছি কয়েকজনের কাছ থেকে। আমরা তাদের ভালোভাবে নিষেধ করলেও তারা খারাপ ব্যবহার করছেন। কিন্তু আমাদের তো কিছু করার নেই।’

দোয়েল চত্বরের ব্যারিকেডে দাঁড়ানো এক পুলিশ কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষক তো রীতিমতো আমাকে দেখে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন। ১০ মিনিটের ভেতর নাকি তিনি আমাকে এখান থেকে সরিয়ে দিবেন!’

গতকাল সকালে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া এবং আজ সকালে র‍্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে কেন্দ্র করে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন। তাঁরা দুজনেই দিবসটিকে স্বগৌরবে এবং স্বমহিমায় উদযাপনের জন্য ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জমান আজ দুপুরে শহীদ মিনার পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের বলেন, মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে প্রায় সব প্রস্তুতি শেষ। কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থার কারণে যাতায়াতের সাময়িক অসুবিধা হচ্ছে। আপাতত এ ছাড়া আর কিছু করারও তো নেই। সাথে সাথে তিনি নাগরিকদের পুলিশকে সহযোগিতা করার আহ্বান জানান।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন