শিরোনাম :

ঈদের টিকিট বিক্রি শুরু


বুধবার, ৮ আগস্ট ২০১৮, ১০:১৯ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ঈদের টিকিট বিক্রি শুরু

ঢাকা: পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। আজ বুধবার সকাল ৮টায় ১৭ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হচ্ছে। চলবে আগামী ১২ আগস্ট পর্যন্ত।

ঈদের টিকিট বিক্রি শুরুর দিন ভোরে কমলাপুরে গিয়ে দেখা যায় যাত্রীদের ভিড়। টিকিটের প্রত্যাশায় বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন। সকাল ৮টা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হলেও অনেকে রাত থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন।

আজ ১৭ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হচ্ছে। ৯ আগস্ট ১৮ আগস্টের, ১০ আগস্ট ১৯ আগস্টের, ১১ আগস্ট ২০ আগস্টের ও ১২ আগস্ট ২১ আগস্টের অগ্রিম টিকিট দেয়া হবে। ১৫ আগস্ট ২৪ আগস্টের, ১৬ আগস্ট ২৫ আগস্টের, ১৭ আগস্ট ২৬ আগস্টের, ১৮ আগস্ট ২৭ আগস্টের ও ১৯ আগস্ট ২৮ আগস্টের ফিরতি টিকিট দেয়া হবে বলে জানান রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টেশন থেকে একযোগে টিকিট দেয়া শুরু হয় বলে রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা গেছে।

প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে (টিকিট থাকা সাপেক্ষে) বিকাল ৫টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি করা হবে। ঈদ উপলক্ষে প্রতিবছরের মতো এবারও অতিরিক্ত যাত্রী বহনে সাত জোড়া (১৪টি ট্রেন) বিশেষ ট্রেন ও ১৫০টি যাত্রীবাহী বাড়তি বগি প্রস্তুত করা হচ্ছে রেলওয়ে পাহাড়তলী ও সৈয়দপুর ওয়ার্কশপে।

তবে গত ২৯ জুলাই কুর্মিটোলায় জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় দেশে টানা কয়েক দিনের অস্থিতিশীল পরিবেশের কারণে সবার মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার সিতাংশু চক্রবর্তী জানান, ঈদ সামনে রেখে পুরো স্টেশন নিরাপত্তার চাদরে ঢাকা হচ্ছে।

বুধবার (আজ) সকাল ৮টা থেকে ৫ দিনব্যাপী অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হচ্ছে। ২৬টি কাউন্টার থেকে একযোগে টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। ৬৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টার থেকে বিক্রি করা হচ্ছে। বাকি টিকিট ভিআইপি কোটা ও ই-টিকিটে বিক্রি করা হবে।

চট্টগ্রাম রেলওয়ে বিভাগীয় বাণিজ্যিক কর্মকর্তা মিজানুর রহমান যুগান্তরকে জানান, প্রতি ঈদেই আমরা অতিরিক্ত যাত্রী বহন ও সেবা বাড়াতে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করি; এবারও নিচ্ছি।

ঢাকা রেলওয়ে থানার ওসি ইয়াছিন ফারুকী জানান, টিকিট কালোবাজারি রোধে পুরো স্টেশনের সঙ্গে কাউন্টারের ভেতর ও বাইরে পর্যাপ্ত সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হচ্ছে। ছাদে যাত্রী ওঠা রোধে আমরা কঠোর হচ্ছি।

রেলওয়ে মহাপরিচালক মো. আমজাদ হোসেন বলেন, এবারও ঈদ উপলক্ষে মাঠপর্যায়ের সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর ছুটি বাতিল করা হয়েছে। যাত্রীসেবা ও অতিরিক্ত যাত্রীবহন নিশ্চিত করতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করা হচ্ছে।

ছোট-বড় রেলওয়ে স্টেশনগুলোতে নিরাপত্তা জোরদার করা হচ্ছে। টিকিট কালোবাজারি রোধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। কালোবাজারিদের কাছে থাকা প্রায় সব টিকিটই নকল, এসব নকল টিকিট না কিনতে অনুরোধ জানান তিনি।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন