শিরোনাম :

শিমুলিয়ায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ফেরি সার্ভিস চালু


রবিবার, ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১২:৫৬ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

শিমুলিয়ায় সাড়ে ৫ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর ফেরি সার্ভিস চালু

মুন্সীগঞ্জ: সাড়ে ৫ ঘণ্টা বন্ধ থাকার পর রবিবার ভোর ৪টা থেকে শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি সার্ভিস চালু হয়েছে। তবে শুরুতেই আবার হোট খায়। ফেরি কিশোরী লৌহজং টানিংয়ের কাছে ন্যাচারল চ্যানেলে নাব্যতার কারণে আটকে যায়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা পর সকাল সাড়ে ৮টায় এটি উদ্ধার করা হয়। এ সময় ফেরিতে থাকা প্রায় ৪ হাজার যাত্রী চরম দুর্ভোগের শিকার হন।

ভোর ৫টার দিকে ফেরি কিশোরী যাত্রীদের নিয়ে কাঁঠালবাড়ি থেকে রওনা হয়। রাতে লঞ্চ ও স্পিডবোট বন্ধ থাকায় যাত্রীরা দীর্ঘ অপেক্ষায় থেকে ফেরিতে উঠে। যাত্রীদের চাপের কারণে কোনো যানবাহন উঠাতে পারেনি। পরে একটি উদ্ধারকারী জাহাজ গিয়ে এটি উদ্ধার করে শিমুলিয়া ঘাটে নিয়ে আসে। রবিবার অনেকে অফিসে যোগদানের লক্ষ্য নিয়ে এই পথে এসে বিপদে পড়ে যায়।

বিআইডব্লিউটিসির এজিএম খন্দকার শাহ খালেদ নেওয়াজ জানান, নাব্য সংকটে দুর্ঘটনা এড়াতে ফেরি সার্ভিস রাতে বন্ধ রাখতে হয়েছে। চ্যানেলের পানি কমে গেছে। এ ছাড়া চ্যানেলটি এখন খুবই সরু। ৮-৯ টি ড্রেজার সেখানে কাজ করার কারণে রাতে ফেরি চালানো যায়নি। তবে সকাল থেকে সীমিত আকারে কে-টাইপ এবং ছোট ৬টি ফেরি চালু হয়। পরে আর দুটি ফেরি চলাচল করে। এই নিয়ে এখন বহরে ১১টি ফেরি চলছে। তবে নাব্যতা সঙ্কটে ২টি রোরোসহ এখনো ৭টি ফেরি অলস বসে আছে। এই বহরে ২২টি ফেরি ছিল। নাব্যতার কারণেই রোরোসহ চারটি ফেরি পাটুরিয়ায় পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে এই বহরে ১৮টি ফেরি রয়েছে।

এদিকে কাঁঠালবাড়ি ঘাটে প্রায় সাড়ে ৩শ’ এবং শিমুলিয়া ঘাটে প্রায় ১শ’ যান পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। তবে অনেকেই গাড়ি রেখে দিনের স্পিডবোট এবং লঞ্চে করে পারপার হচ্ছে। স্পিডবোট এবং বাসে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে বলে যাত্রীরা অভিযোগ করেছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন