শিরোনাম :

রানা প্লাজা ধসে আহত শ্রমিকদের ৪৮ শতাংশ বেকার


মঙ্গলবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৮, ০৩:০৪ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

রানা প্লাজা ধসে আহত শ্রমিকদের ৪৮ শতাংশ বেকার

ডেস্ক প্রতিবেদন: সাভারে রানা প্লাজা ধসের ৫ বছর পরও আহত শ্রমিকদের ৪৮ শতাংশ বেকার। শারীরিক অক্ষমতা আর মানসিক বিপর্যয়ের কারণে কাজে ফিরতে পারেনি অনেকে।

২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল।সাভারে ঢাকা- আরিচা মহাসড়কের পাশের বহুতল ভবন রানা প্লাজা হঠাৎই ধসে পড়ে।ভবনটির তৃতীয় থেকে ষষ্ঠ তলা পর্যন্ত ছিলো কয়েকটি তৈরি পোশাক কারখানা।মুহুর্তেই ধ্বংসস্তুপে চাপা পড়ে কয়েক হাজার মানুষ।ইট পাথরের চাপায় প্রাণ হারায় ১ হাজার একশ’ ৩৮ জন। আহত হয় প্রায় দুই হাজার শ্রমিক।

এ’ঘটনা অনাথ করে অনেক শিশু-কিশোরকে।আহতদের মধ্যে অনেকেই কর্মক্ষমতা হারিয়ে ফেলেন চিরদিনের জন্য।

সামান্য অনুদান জুটলেও শ্রমিকদের দাবি, মেলেনি ক্ষতিপূরণ।অনুদানের অর্থে পারিবারিক ব্যয় মেটানো সম্ভব হয়নি আহত শ্রমিকদের।বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আহত শ্রমিকদের বর্তমান পরিস্থিতি পুন:মূল্যায়ন করা প্রয়োজন।

ঘটনা সামলে নিয়ে সরকার, বিদেশী বিনিয়োগকারী এবং দাতাসংস্থার উদ্যোগে নিহত শ্রমিকদের পরিবার ও আহত শ্রমিকদের সাময়িক অর্থকষ্ট দূর করার চেষ্টা হয়েছে।

তবে, অনুদানের অর্থে পরিবারের ব্যয় মিটিয়ে ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব হয়নি আহত শ্রমিকদের। আক্ষেপ আছে পুনর্বাসনের আশ্বাস দিয়ে তা পূরণ না করার।

বছরের পর বছর একই কথা বললেও কাজের কাজ হয় না বলে অভিযোগ করেন কেউ কেউ।

একটি আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থার বাংলাদেশ কার্যালয় রানা প্লাজা ট্রাজেডিতে আহত ১৪শ’ শ্রমিকের মধ্যে জরিপ করে। এতে বলা হয়েছে, ওই ঘটনায় আহত শ্রমিকদের ৪৮ শতাংশ এখনো বেকার।

আর আহত শ্রমিকদের বর্তমান পরিস্থিতি পূন:মূল্যায়নের পরামর্শ দিয়েছেন সিপিডির প্রকল্প পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। ক্ষতিগ্রস্তদের আর্থিক ঝুঁকি নিরসনে আইনি কাঠামো শক্তিশালী করারও পরামর্শ দিয়েছেন এ বিশেষজ্ঞ।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন