শিরোনাম :

ভালো আছেন খুনিরা, আপনি ভালো তো?


মঙ্গলবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৬, ১১:৫১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

গত ২২ থেকে ২৫ এপ্রিল, এই তিনদিনে খুন হয়েছে চার জন। প্রতিদিনি বাংলাদেশে খুন-গুম হয় মানুষ। কিন্তু এই খুনটা আলাদা। খুনিদের অভিযোগ এরা নাস্তিক, মুক্তমনা, বিধোর্মী, সংস্কৃতিমনা। ২২ এপ্রিল টুঙ্গিপাড়ায় পরমানন্দ রায় নামে এক সাধুকে হত্যা, ২৩ এপ্রিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে কুপিয়ে মারা এবং ২৫ এপ্রিল রাজধানীর কলাবাগানে বাসায় ঢুকে মানবাধিকার কর্মী জুলহাস মান্নান ও মাহবুব তনয়কে খুন করা এবং এ কইদিন কাশিমপুর কারাগারের সামনে অবসরপ্রাপ্ত কারারক্ষীকে গুলি করে হত্যা করা চলতি মাসের বিশ দিনে ৩৫০টি হত্যাকাণ্ডের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ঘটনা। এই কারণে এই চারটি খুনকে আলাদা করে চিহ্নিত করা হচ্ছে। এই ধরনের হত্যাকাণ্ড গত কয়েকবছর ধরে সংঘটিত হচ্ছে। কিন্তু এ কয়দিনে খুনিরা আরো ততপর হয়ে উঠেছে। মনে হচ্ছে যেন দেশে খুনের মৌসুম যাচ্ছে। এখন খুনিরা যাচ্ছে ইচ্ছে তাকে খুন করবে। প্রশাসন বলছে প্রশাসনের পাশাপাশি জনগণকেও তাদের জীবনের নিরাপত্তার দায়িত্ব নিতে হবে। প্রশাসন অন্যায় কিছু বলেনি। ‌'যার যার মাল, তার তার দায়িত্ব!' কারণ খুনিদের হাতে প্রশাসনও আর এখন নিরাপদে নেই। কলাবাগানে হত্যাকাণ্ড সম্পাদন করে খুনিরা পালিয়ে যাওয়াম সময় পুলিশকে আহত করে গেছে। মৌসুম যখন খুনিদের তখন আসলে আমরা কেউই আর নিরাপদ নই।

তারওপর কি এক অজানা কারণে এদেশে খুনিরা খুব একটা ধরে পড়েন না। আমরা খুনিদের চিনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতের লোকজন। বুঝতে আমাদেরও অসুবিধা হয় না, এ সব হত্যাকান্ডের নেপথ্যে রয়েছে ইতিবাচক সরকারকে নেতিবাচকে পরিণত করার ষড়যন্ত্র। জননিরাপত্তার ইস্যুতে মানুষকে সরকারের বিরুদ্ধে দাঁড় করাতে পারলে সুবিধা হবে বিএনপি-জামায়াতের। এজন্যই ২৫ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশকে অস্থিতিশীল করতে বিএনপি-জামায়াতচক্র গুপ্ত হত্যাকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে।

এখন প্রশ্ন হল, এভাবে শত্রুকে মৌখিকভাবে চিহ্নিত করা যথেষ্ট কিনা? এতে কি মানুষ মরা কমবে? ক্ষমতাসীন সরকার নিশ্চিত করেই বিএনপি জামায়াতের ওপর দায় চাপিয়ে পার পেয়ে যেতে পারে না। জনগণ চায় খুনিরা বিচারের আওতাই আসুক। এই চাওয়ার সঙ্গে জননিরাপত্তার প্রশ্নটি জড়িত। সরকারও এক্ষেত্রে খুনিদের ধরে চিহ্নিত করে নিজেদের অবস্থান পরিস্কার করতে পারে। সেই প্রত্যাশা কিন্তু সকলেই করছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন