শিরোনাম :

রাবির রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতির বিরুদ্ধে শিক্ষকদের অনাস্থা


বুধবার, ২ আগস্ট ২০১৭, ০৭:৩৪ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

রাবির রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতির বিরুদ্ধে শিক্ষকদের অনাস্থা

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি প্রফেসর ড. নাসিমা জামানের বিরুদ্ধে অনাস্থা জ্ঞাপন করেছে বিভাগের ১৩ শিক্ষকের মধ্যে ১১ জন শিক্ষক। বুধবার দুপুরে বিভাগের শিক্ষকরা ভিসি প্রফেসর এম আব্দুস সোবহানের সাথে দেখা করে বিভাগের সভাপতির বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগপত্রে এই অনাস্থা জ্ঞাপন করেন তাঁরা।

ভিসি কাছে লিখিত অনাস্থা জ্ঞাপন পত্র থেকে জানা যায়, ‘ বিভাগের সভাপতির বিতর্কিত কর্মকা-ের কারণে অচল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে দাবী করে ৭টি অভিযোগ এনে তার বিরুদ্ধে অনাস্থা জ্ঞাপন করেন শিক্ষকরা।

অভিযোগগুলো হচ্ছে, (১) সভাপতি একাডেমিক সভার সিদ্ধান্ত অগ্রাহ্য করে ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত কমিটির সকল সদস্যদের উপর চাপিয়ে দেন, (২) একাডেমিক কমিটির সভায় কোরাম সংকটের অশঙ্কায় জরুরী সভা আহ্বানের প্রচলিত বিধান ভঙ্গ করে ক্রমাগত জরুরী সভা ডেকে এককভাবে সিদ্ধান্ত নেন, (৩) তিনি বিভাগের শিক্ষকদের সম্পর্কে অন্য বিভাগের শিক্ষক ও নিজ বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছে মিথ্য ও বানোয়াট তথ্য দিচ্ছেন, (৪) শিক্ষক মোছা. রুখসানা পারভীন সভাপতির প্রচ্ছন্ন ইঙ্গিতে শ্রেণী কক্ষে অধিকংশ শিক্ষকদের বিরুদ্ধে অপত্তিকর, কুরুচিপূর্ণ ও মর্যাদাহানিকর বক্তব্য দিচ্ছেন। যার কারণে শিক্ষার্থীদের মধ্যে এক ধরণের বিব্রতকর অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, (৫) একাডেমিক কমিটির সভায় বিভাগের সভাপতির কক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ছবি সংরক্ষণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়, কিন্তু এই রেজুলেশন অবজ্ঞা করে আজ অবধি ছবি সংরক্ষণ করেনি, (৬) তিনি বিভাগের শিক্ষকদের সাথে খারাপ আচারণ করেন এবং বিভাগের কেনাকাটাসহ সকল বিষয়ে এককভাবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন, (৭) সভাপতি বেশিরভাগ সময় কর্মস্থল ত্যাগ করলে সভাপতির দায়িত্ব মোতাবেক অন্যকে দায়িত্ব দেওয়ার কথা থাকলেও মান্য করেন না। ফলে বিভাগের প্রশাসনিক কাজ বিঘ্নিত হয়।’

এদিকে লিখিত অনাস্থা জ্ঞাপনের অনুলিপিটি প্রো-ভিসি, রেজিস্ট্রার ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীনের কাছেও দিয়েছে বিভাগের শিক্ষকরা।

অনাস্থা জ্ঞাপনের বিষয়ে জানতে চাইলে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. এম আমিনুর রহমান বলেন, ‘বিভাগের জটিলতা নিরসন ও শিক্ষকদের মর্যাদা রক্ষার্থে ৭টি কারণ উল্লেখপূর্বক সভাপতির প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন বিষয়টি লিখিতভাবে মাননীয় উপচার্য স্যারের কাছে দিয়েছি।

এছাড়া লিখিত অনুলিপি প্রো-ভিসি, রেজিস্ট্রার ও ডীনের কাছেও দিয়েছি। আশাকরি প্রশাসন এব্যাপারে যথোপযুক্ত সিদ্ধান্তের মাধ্যমে সমস্যার সমাধান করবে।
অভিযোগের ব্যাপারে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি প্রফেসর নাসিমা জামান বলেন, ‘আমি সকল সিদ্ধান্ত বিশ্ববিদ্যালয় অর্ডিনেন্স ও প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা যেভাবে কাজ করতে বলেছে, সেভাবেই করেছি। আইনের কোন রকম ব্যর্তয় হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা বলেন, ‘ভিসি স্যারের কাছে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষকরা সভাপতি বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। তিনি এ বিষয়টি দেখতে চেয়েছেন।’

এবিএ

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন