শিরোনাম :

‌‌‌পাকিস্তানকে রেফারেন্স জাতিকে অপমান করার শামিল: ভিসি হারুন


বৃহস্পতিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৭, ০৪:৫৬ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

‌‌‌পাকিস্তানকে রেফারেন্স জাতিকে অপমান করার শামিল: ভিসি হারুন

রাবি প্রতিনিধি: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর হারুন-অর-রশিদ বলেছেন, ‘একটি দেশের তিনটি প্রধান অঙ্গ- আইন বিভাগ, বিচার বিভাগ ও শাসন বিভাগ । এই তিনটি বিভাগের মধ্যে ক্ষমতার ভারসাম্য, সমন্বয় এবং সহযোগিতা থাকা দরকার। এই তিনটি বিভাগের একটি কখনো স্বাধীন সত্ত্বা হিসেবে চলতে পারে না।’

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতন দিবস উপলক্ষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট চত্ত্বরে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে একটি শোভাযাত্রা সিনেট চত্ত্বর থেকে শুরু ক্যাম্পাসের প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ শেষে আলোচনা সভায় মিলিত হয়।

প্রফেসর হারুন অর রশিদ বলেন, ‘সংবিধানের ৭ নম্বর অনুচ্ছেদে বলা আছে, প্রজাতন্ত্রের সকল ক্ষমতার মালিক জনগণ। আর জনগণের প্রতিনিধি হলো সংসদ সদস্য। তার শিক্ষাগত যোগ্যতা থাক বা না থাক, তিনি জনগণের প্রতিনিধি। সংসদ যদি বিচার বিভাগের জন্য অর্থ বরাদ্দ না দেয় তাহলে বিচার বিভাগ কি চলবে?’

তিনি আরও বলেন, ‘পাকিস্তান কখনো বাংলাদেশের রেফারেন্স হতে পারে না। পাকিস্তানকে রেফারেন্স জাতিকে অপমান করার শামিল। যার যে দায়িত্ব, তা বাংলাদেশের আদর্শ সমুন্নত রেখে কর্মকা- পরিচালনা করতে হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে রাবি ভিসি প্রফেসর আব্দুস সোবহান বলেন, ‘এই দেশ স্বাধীন না হলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হতে পারতাম না, বিচারপতি কিংবা প্রধান বিচারপতি হতে পারতাম না। সেই প্রধান বিচারপতির মুখ থেকে যদি এরকম কথা আসে যে, একক নেতৃত্বে এদেশ স্বাধীন হয়নি। এর চেয়ে সারওয়ার জাহান, প্রফেসর ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার তাপু প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে ২০০৭ সালের ২০ আগস্ট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দেশের সব পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-ছাত্রদের সঙ্গে সেনা সদস্যদের সংঘর্ষ হয়। ওই সংঘর্ষে কয়েক’শ মানুষ আহত হন। সে সময় রাবি থেকে আট শিক্ষক ও এক কর্মকর্তাকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর থেকে প্রতিবছর ২৪ আগস্ট রাবিতে ‘ছাত্র-শিক্ষক নির্যাতন’ দিবস পালন করা হয়।

 

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন