শিরোনাম :

কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে মারধর, গাড়ি ভাঙচুর


সোমবার, ৬ নভেম্বর ২০১৭, ০৬:৪০ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসিকে মারধর, গাড়ি ভাঙচুর

ডেস্ক প্রতিবেদন: জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ভিসি শামসুর রহমানকে মারধর ও তার গাড়ি ভাঙচুর করেছে শিক্ষার্থীরা। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, দায়িত্বে থাকা পুলিশ কর্মকর্তাসহ আহত হন বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী।

সোমবার বেলা ১২টায় ভারপ্রাপ্ত ভিসি ও ট্রেজারার শামসুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ করেছে- এ খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ভবনের সামনেই অবস্থান নিয়ে ভিসির গাড়ি আধাঘণ্টা অবরোধ করে রাখে এবং ভিসিকে ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য স্লোগান দিতে থাকে।

এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে গাড়ি ভাঙচুর এবং ভিসিকে মারধর করতে থাকে শিক্ষার্থীরা। এ সময় ভারপ্রাপ্ত ভিসি- শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে তার অফিস কক্ষে প্রবেশ করতে পারেননি।

পুলিশ শিক্ষার্থীদের নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হলে ভিসি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পালিয়ে যাওয়ার সময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জাহিদুল কবীরসহ প্রক্টনিয়াল বডির সদস্যরা এসে ভারপ্রাপ্ত ভিসিকে নিরাপদে ক্যাম্পাস থেকে বাসায় পৌঁছে দেয়ার সময় কিছু শিক্ষার্থী গাড়ি ভাঙচুর করে ও জুতা নিক্ষেপ করে।

গাড়িতে ধাওয়ার সময় বিশ্বদ্যিালয়ের প্রক্টর জাহিদুল কবীর, বিশ্ববিদ্যালয়ের পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই কামরুল ইসলামসহ বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন। পরে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ মিছিল ও প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে সমাবেশ করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর জাহিদুল কবীর জানান, ‘ভারপ্রাপ্ত ভিসির আগমনকে ঘিরে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে তাকে নিরাপদে পৌঁছার ব্যবস্থা করি। এখন ক্যাম্পাসে স্বাভাবিক অবস্থা রয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার হুমায়ুন কবীর জানান, ‘ভর্তি কমিটির মিটিংয়ে যোগদানের জন্য ভিসি ক্যাম্পাসে এসেছিলেন। শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে তিনি প্রবেশ করতে না পারায় মিটিং স্থগিত করা হয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয় পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের দায়িত্বরত এসআই কামরুল ইসলাম জানান, ‘ভারপ্রাপ্ত ভিসির ক্যাম্পাসে আসা নিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে উত্তেজনা বিরাজ করে। এ সময় ধাক্কাধাক্কিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, আমিসহ বেশ কজন শিক্ষার্থী আহত হন।’

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি, নিয়োগ বাণিজ্য, অবৈধভাবে বদলি ও রাষ্ট্রপতির ভাগিনা পরিচয় দিয়ে ক্ষমতার অপব্যবহার নিয়ে ভারপ্রাপ্ত ভিসি ট্রেজারার শামসুর রহমানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর থেকে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে শুরু করে। এরই প্রেক্ষিতে গত বৃহস্পতিবার বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ করা হয় তাকে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন