শিরোনাম :

ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর


সোমবার, ৯ এপ্রিল ২০১৮, ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর

ডেস্ক প্রতিবেদন: রোববার দিবাগত রাত দেড়টা থেকে দুইটার মধ্যে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী এবং পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরো ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়ে।আন্দোলনকারীরা উপাচার্যের বাসভবনের ভেতর তছনছ এবং ব্যাপক ভাঙচুর করে।বাসভবনের শোয়ার ঘর থেকে বাথরুম, রান্নাঘরসহ সবখানে তারা ভাঙচুর চালায়।সে সময় তারা বাসভবনের সামনে আগুন ধরিয়ে দেয়।বাসভবনের সামনে থাকা গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে আন্দোলনকারীরা।বিপুলসংখ্যক পুলিশ নীলক্ষেতের দিক দিয়ে ক্যাম্পাসের ভেতর প্রবেশ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। সে সময় কলাভবন ও মল চত্বর এলাকায় পুলিশের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর

এর আগে রাত দেড়টায় প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, সন্ধ্যার পর থেকে সংঘর্ষে প্রায় অর্ধশতাধিক আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

আহতদের মধ্যে যাদের পরিচয় জানা গেছে তারা হলেন- আকরাম হোসেন (২৬), আবুবকর সিদ্দিক (২২), মো. রফিক (২৪), রাফি আলামিন (২২), রাজ (২৩), সোহেল (২৫), ওমর ফারুক (২৫), খোরশেদ (২৬), মাহিম (২২), আসলাম (২৩) ও আওলাদ হোসেন (৫০), শাহ পরাণ (২২), অমিত (২৩) রবিন (২২) ও রাসেল (২২)।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া বলেন, আহতদের মধ্যে বেশ কয়েকজন চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল ছেড়ে চলে গেছেন।তবে কারও অবস্থা গুরুতর নয়।

হাসপাতালে জরুরি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক মো. আলাউদ্দিন প্রথম আলোকে বলেন, আহত সবাই আশঙ্কা মুক্ত।

উল্লেখ্য, চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে গতকাল বিকাল থেকে শাহবাগ এলাকা অবরোধ করে রাখে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।একপর্যায়ে রাত আটটার দিকে পুলিশের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ শুরু হয়।পুলিশের লাঠিপেটা, কাঁদানে গ্যাসের শেল এবং গুলিতে অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে।আহতদের মধ্যে পুলিশের সদস্যও রয়েছেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন