শিরোনাম :

শিক্ষার্থীদের কোটা আন্দোলন থেকে সরে আসার আহ্বান


বুধবার, ১৮ জুলাই ২০১৮, ০৯:৪৩ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

শিক্ষার্থীদের কোটা আন্দোলন থেকে সরে আসার আহ্বান

ঢাকা: কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের আন্দোলন থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে নো বলে কোনো শব্দ নেই, তিনি অবস্যই কোটা সমস্যার সমাধান করবেন। তোমরা আন্দোলন থেকে সরে এসো, যার যার ক্লাসে যাও পড়া-লেখায় মোন দাও।

মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) অডিটোরিয়ামে ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারা অন্তরীণ ও গণতন্ত্র অবরুদ্ধ দিবস’ উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি সাধারণ শিক্ষার্থীদের এ আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে কোটা সংস্কারের দাবি সামনে আনা হয়। ৩০ শতাংশ মু্ক্তিযোদ্ধা, ১০ শতাংশ করে নারী ও জেলা কোট, পাঁচ শতাংশ ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী কোটা এবং এক শতাংশ প্রতিবন্ধী কোটার বদলে সব মিলিয়ে কোটা ১০ শতাংশ করার দাবি ছিল ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের’।

আর গত ৮ থেকে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত নানা ঘটনার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী ১১ এপ্রিল সংসদে ঘোষণা দেন, সরকারি চাকরিতে কোনো কোটা থাকবে না।

গত ২ জুলাই কোটা সংস্কার, বাতিল বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে একটি কমিটি গঠন করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। এর মধ্যে ১১ জুলাই মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মোজাম্মেল হক জানান, মুক্তিযোদ্ধা কোটা বহাল রাখার বিষয়ে উচ্চ আদালতের রায় আছে। পরদিন সংসদে প্রধানমন্ত্রীও এই রায়ের কথা উল্লেখ করে বলেন, এখন এই কোটা বাতিল হলে আদালত অবমাননা হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যারা ভিসির বাড়িতে হামলা করেছে, তাদেরকে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন,শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। তিনি সব ষড়যন্ত্রকে মোকাবিলা করে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী যখন ক্ষমতায় এসেছেন, তখন তিনি বলেছেন দেশকে বদলে দেবেন। তেমনি তিনি আজকের বাংলাদেশকে বদলে দিয়েছেন। তিনি মূলত বঙ্গবন্ধুর পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সদ্য বিদায়ী কমিটির সভাপতি সাইফুর রহমার সোহাগের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইনের সঞ্চালনায় প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. হারুর অর রশিদ ও বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার প্রমুখ।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন