শিরোনাম :

১৫০টি শর্তপূরণের পরই এমপিওভুক্তি


শনিবার, ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:৪৯ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

১৫০টি শর্তপূরণের পরই এমপিওভুক্তি

ঢাকা: অনলাইন আবেদনকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে প্রতিবছর প্রায় ১৫০টির মতো শর্তপূরণ হওয়া প্রতিষ্ঠানকে প্রথম ধাপে বেতন-ভাতার সুবিধার আওতায় আনা হবে।

নতুন এমপিওভুক্তি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারীদের আগামী শিক্ষাবর্ষ থেকে সরকারি বেতন-ভাতার সুবিধা প্রদান করা হবে।

পর্যায়ক্রমে যোগ্য প্রতিষ্ঠানগুলোকে এমপিওভুক্তির (মাসিক পেমেন্ট সুবিধা) আওতায় আনা হবে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

জানা গেছে, গত ৫ আগস্ট থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত এমপিওভুক্তির জন্য সারাদেশের প্রায় সাড়ে ছয় হাজার স্কুল-কলেজ থেকে অনলাইন আবেদন জমা পড়ে। একই প্রতিষ্ঠান থেকে একাধিক আবেদন এসেছে।

তার মধ্যে- নিম্ন মাধ্যমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের আবেদন রয়েছে। অন্যদিকে, গত ২৬ আগস্ট থেকে শুরু হয়েছে কারিগরি ও মাদরাসা এমপিওভুক্তির আবেদন কার্যক্রম। আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে এ প্রক্রিয়া।

সূত্র জানায়, আগামী ৮ সেপ্টেম্বরের পর আবেদন করা প্রতিষ্ঠানের যাচাই-বাছাই কাজ শুরু হবে। এরপর খসড়া তালিকা করে মন্ত্রীর কাছে উপস্থাপন করা হবে। চলতি অর্থবছরে স্কুল-কলেজ এমপিওভুক্তিতে ৪৩২ কোটি দুই লাখ ৭৩ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।
গত ২৬ আগস্ট থেকে ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রায় আড়াই হাজার কারিগরি ও মাদরাসা এমপিওভুক্তির জন্য আবেদন জমা পড়েছে। এ প্রতিষ্ঠান থেকে একাধিক স্তরের এমপিওভুক্তির জন্য আবেদন এসেছে। আবেদন কার্যক্রম শেষে খসড়া প্রতিবেদন তৈরি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জামা দেয়া হবে।

এরপর শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে সর্বোচ্চ পর্যায়ে তা অনুমোদন হলে সেটি অর্থ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হবে। অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে যে পরিমাণে অর্থ ছাড় দেবে সেই পরিমাণে প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি করা হবে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন