শিরোনাম :

বাসচাপায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত


মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯, ১১:৪৬ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বাসচাপায় বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত

ঢাকা: রাজধানীর প্রগতি স্মরণীর নর্দ্দায় বাসের চাপায় এক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। বাসচালককে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার পর যমুনা ফিউচার পার্কের সামনের রাস্তা অবরোধ করে রেখেছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী। 

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে সুপ্রভাত পরিবহন নামের বাসের চাপায় ওই শিক্ষার্থী নিহত হন। নিহতের মরদেহ কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানায়, নিহত শিক্ষার্থীর নাম আবরার আহমেদ চৌধুরী (২০)। তার বাবা আরিফ আহমেদ চৌধুরী। আবরার বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী ছিলেন।

দুর্ঘটনার পর নিহত ছাত্রের সহপাঠীরা বাসটি আটক করে। এসময় চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। সড়ক অবরোধকারীরা, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও দায়ীদের বিচার দাবিতে স্লোগান দিচ্ছিলেন। অবরোধের কারণে সড়কের দুপাশে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। ট্রাফিক শৃঙ্খলা সপ্তাহের মধ্যেই ঘটলো এ ঘটনা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানা যায়, বিইউপির একটি বাস যমুনা ফিউচার পার্কের সামনে দাঁড়িয়েছিল। সকাল সাড়ে ৭টার দিকে আবরার ওই বাসে উঠতে যাচ্ছিলেন। এ সময় পাশে থাকা গাজীপুরগামী সুপ্রভাত পরিবহনের বাস তাকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ শুরু করেন।

এতে চরম দুর্ভোগে পড়েন অফিসগামী লোকজনসহ সব বাসযাত্রীরা। এ সময় তাদেরকে পায়ে হেটে গন্তব্যের উদ্দেশে যাত্রা করতে দেখা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে ছাত্রদের শান্ত করার চেষ্টা করে।

ঘটনাস্থলে আসা গুলশান থানার এসআই মোশাররফ হোসেন বলেন, ঘাতক বাসটি আটক করে থানায় নিয়ে পাঠানো হয়েছে।

গুলশান থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাসের চালক সিরাজুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। যার নিজের প্রোফাইলে ছিল ‘নিরাপদ সড়ক চাই’ এর দাবি। ফ্রেমে দিয়েছিল তেমনি ছবি। সে আজ সেই সড়কেই প্রাণ হারালো।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন