শিরোনাম :
   জাগো বাংলাতে সাংবাদিকতায় চাকরির সুযোগ    ইরানকে নিয়ে সমালোচনার কড়া জবাব দিলেন হাসান রুহানি    রোহিঙ্গা সংকট: নিরাপত্তা পরিষদকে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান    সু চিকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ হিসেবে ফৌজদারি আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর সুপারিশ    আজকের রাশিফল: ২১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার, ২০১৭    নিজেদের মাঠে বেটিসের কাছে হেরে গেল রিয়াল মাদ্রিদ    মিয়ানমারের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত: জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান    রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ২৬২ কোটি টাকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র    রোহিঙ্গা হত্যার প্রতিবাদে বরিশালে ধ্রুবতারার মানববন্ধন অনুষ্ঠিত    সাপাহারে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ রাস্তাগুলো  দ্রুত সংস্কারের দাবী এলাকাবাসীর 

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কিংবদন্তি নায়ক রাজরাজ্জাক


বুধবার, ২৩ আগস্ট ২০১৭, ০৪:৪৮ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন কিংবদন্তি নায়ক রাজরাজ্জাক

ডেস্ক প্রতিবেদন: কিংবদন্তি নায়করাজ রাজ্জাককে সমাহিত করা হলো বনানী কবরস্থানে। বৃষ্টি, জলাবদ্ধতা আর দীর্ঘ যানজট এই সব কিছু উপেক্ষা করে প্রিয় মানুষটিকে শেষবারের মতো সম্মান জানাতে ছুটে এসেছেন অনেকে। পরিবারের পাশাপাশি তাদের মধ্যে ছিলেন চলচ্চিত্র ও গণমাধ্যমের মানুষজন।

ইউনাইটেড হাসপাতালের শবহিমাগার থেকে আজ ২৩ আগস্ট বুধবার সকাল ১০টায় নায়করাজ রাজ্জাকের মরদেহ নিয়ে আসা হয় বনানী কবরস্থানে। এ সময় এখানে উপস্থিত ছিলেন নায়করাজ রাজ্জাকের তিন ছেলে বাপ্পারাজ, বাপ্পি ও সম্রাট; চিত্রনায়ক উজ্জ্বল, শাকিব খান ও ফেরদৌস এবং রাজ্জাকের পরিবারের মানুষজন।

দাফনের পর সম্রাট বলেন, ‘আপনারা আমাদের পাশে সব সময় ছিলেন। সেজন্য ধন্যবাদ। আমরা মেজ ভাইয়ের জন্য অপেক্ষা করেছিলাম। তিনি এসেছেন। আমরা তিন ভাই মিলে দাফন করেছি। সবাই আমার বাবার জন্য দোয়া করবেন। ’

শাকিব খান বলেন, ‘আমাদের ইন্ডাস্ট্রি দাঁড় করিয়েছেন তিনি। তিনি আমাকে ছেলের মতো দেখতেন। আদর করতেন। বিভিন্ন সময় নানা বিষয়ে পরামর্শ দিতেন, উপদেশ দিতেন। ’

মঙ্গলবার বিকেলে বনানী কবরস্থানে দাফন করার কথা ছিল নায়করাজ রাজ্জাককে। কিন্তু তার মেজ ছেলে রওশন হোসেন বাপ্পি কানাডা থেকে তখনো দেশে এসে পৌঁছাতে পারেননি। আজ ভোর ৪টায় বাপ্পি দেশে এসে পৌঁছেছেন।

সম্রাট জানান, আগামী শুক্রবার বাদ আসর গুলশান আজাদ মসজিদে রাজ্জাকের কুলখানি অনুষ্ঠিত হবে।

গতকাল ২২ আগস্ট মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা জানান নায়করাজ রাজ্জাককে। এর আগে সকালে রাজ্জাকের দীর্ঘ দিনের কর্মস্থল এফডিসিতে প্রথম জানাজা এবং বাদ আসর গুলশান আজাদ মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

সম্রাট বলেন, ‘বাবাকে ক্ষমা করে দিয়েন। দোয়া করবেন সবাই। দেনা পাওনা থাকলে আমাদের তিন ভাইকে জানাবেন। বাবা যখন মারা যান আমরা সবাই পাশে ছিলাম। বাবার মৃত্যু হয়েছে শান্তির মৃত্যু। ’

গুলশান আজাদ মসজিদে দ্বিতীয় জানাজা শেষে নায়করাজ রাজ্জাকের মরদেহ ইউনাইটেড হাসপাতালের শবহিমাগারে রাখা হয়। গত ২১ আগস্ট সোমবার সন্ধ্যায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা যান নায়করাজ রাজ্জাক।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন