শিরোনাম :

না ফেরার দেশে গিরিজা দেবী


বুধবার, ২৫ অক্টোবর ২০১৭, ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

না ফেরার দেশে গিরিজা দেবী

বিনোদন ডেস্ক: না ফেরার দেশে চলে গেছেন বিশ্ব শাস্ত্রীয় সঙ্গীতের প্রখ্যাত শিল্পী বিদুষী দেবী গিরিজা প্রসাদ। কলকাতার বিএম বিড়লা হাসপাতালে মঙ্গলবার রাত পৌনে ৯টার দিকে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ৮৮ বছর বয়সী গিরিজা দেবী বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।

ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানায়, বুকে ব্যথা শুরু হওয়ায় গতকাল মঙ্গলবার সকালে পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার বিএম বিড়লা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় গিরিজা দেবীকে। অবস্থা সংকটাপন্ন হয়ে পড়লে তাঁকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে রাত ৮টা ৪৫ মিনিটে তিনি শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

গিরিজা দেবীর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, পণ্ডিত অজয় চক্রবর্তী, ওস্তাদ রশিদ খানসহ অনেকে।

বেনারস ও সেনিয়া ঘরানার শিল্পী গিরিজা দেবী ১৯২৯ সালে বারাণসীতে জন্মগ্রহণ করেন।হিন্দুস্তানি ধ্রুপদী সঙ্গীতকে তিনি ভিন্ন এক মাত্রা এনে দিয়েছিলেন।ধ্রুপদী ও শাস্ত্রীয় সঙ্গীতে গিরিজা দেবী যথেষ্ট অবদান রাখেন।জীবদ্দশায় তিনি ‘ঠুমরির রানি’ হিসেবে পরিচিতি পান।১৯৪৯ সালে অলইন্ডিয়া এলাহাবাদ রেডিওতে পরিবেশনার মাধ্যমে গিরিজা দেবীর আত্মপ্রকাশ ঘটে।

ছয় দশকের বেশি বর্ণাঢ্য সঙ্গীতজীবনে গিরিজা দেবী অর্জন করেছেন বহু পুরস্কার ও সম্মাননা।এর মধ্যে রয়েছে ভারত সরকারের পদ্মশ্রী (১৯৭২), পদ্মভূষণ (১৯৮৯) ও পদ্মবিভূষণ (২০১৬) সম্মাননা। প্রতিষ্ঠাকাল থেকে কলকাতা ’আইসিটি সঙ্গীত রিসার্চ একাডেমিতে’ সঙ্গীত গুরু ছিলেন তিনি।

ঢাকায় বেঙ্গল উচ্চাঙ্গসঙ্গীত উৎসবে তিনবার এসেছিলেন গিরিজা দেবী। সর্বশেষ গত বছর বেঙ্গলউচ্চাঙ্গ সঙ্গীত উৎসবের মঞ্চে সবার কাছ থেকে আনুষ্ঠানিক বিদায় নেন। সবাইকে জানান, শারীরিক অসুস্থতায় তিনি আর এই মঞ্চে পারফরমেন্স করতে পারবেন না।

গিরিজা দেবী কণ্ঠশিল্পী ও সারেঙ্গিবাদক সারজুপ্রসাদ মিশ্রর কাছে প্রথমে খেয়াল ও টপ্পায় প্রশিক্ষণ নেন। পরবর্তীতে চাঁদ মিশ্রর কাছে বিভিন্ন সঙ্গীতরীতি রপ্ত করেন তিনি।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন