শিরোনাম :

সিনেমা ছেড়ে হজে যাবেন অপু


রবিবার, ২৬ নভেম্বর ২০১৭, ১২:১০ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

সিনেমা ছেড়ে হজে যাবেন অপু

বিনোদন ডেস্ক: ঢালিউড কুইন অপু বিশ্বাস সিনেমায় অভিনয় করবেন না। আগামী বছর পবিত্র হজ পালন করার ব্যাপারেও ভাবছেন তিনি। এমনটাই জানালেন এই নায়িকা।

এদিকে শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে কলকাতায় চিকিৎসা শেষে গেলো শনিবার রাতে দেশে ফিরেছেন তিনি। দেশে ফিরে অপু বিশ্বাস জানান, গত বৃহস্পতিবার রাতে বাথরুমে পা পিছলে মারাত্মকভাবে আহত হন তিনি। তার পেটে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভূত হয় এবং প্রস্রাবের সঙ্গে রক্তপাত শুরু হয়। ভোর ৪টায় তিনি ড্রাইভারকে ডেকে এনে কাছের একটি হাসপাতালে যান। সেখানে গাইনোলোজির ভালো কোনো চিকিৎসক না থাকায় ভারতের শিলিগুড়িতে থাকা তার বড় বোনকে ফোন দিয়ে সব জানান।

অপু বলেন, আমার সন্তানের জন্ম হয়েছে ভারতে। সেখানে যে চিকিৎসক আমার সিজার করান। আমি তার সঙ্গে যোগাযোগ করি। তিনি বলেন, আমি পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করে কিছু বলতে পারব না। যদি সম্ভব হয় আপনি দ্রুত চলে আসুন।

ঢালিউড কুইন আরো বলেন, আমার ভিসা আগে থেকেই করা ছিল। তাই সকালেই ভারতে যাই। শিলিগুড়িতে প্রচণ্ড শীত থাকায় আমার সন্তান জয়কে বাসায় রেখে রওনা হই। সেখানে ডাক্তার কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানান আমার সিজারের জায়গায় আঘাত লাগায় ইন্টারনাল মাইনর সমস্যা হয়েছে।

অপু জানান, ডাক্তার আমাকে ভারী কোনো কাজ না করার জন্য বলেছেন। সিনেমায় নাচ-গান করতে গেলে সমস্যা হবে বলেও জানিয়েছেন। তাই আপাতত সিনেমায় অভিনয় করছি না।

বাচ্চাকে তালা দিয়ে রেখে গেছেন বলে শাকিব খান যে অভিযোগ করেছেন তার জবাবে অপু বলেন, শাকিব দেশে এসেছেন সেটাও আমি জানতাম না। জানলে তো শাকিবের কাছেই জয়কে রেখে যেতাম। আর আমি শাকিবের স্ত্রী, আমি শারীরিকভাবে আহত হয়েছি বিষয়টাও তাকে উদ্বিগ্ন করলো না!

শাকিবের পরিবারের লোকজন তো ছিল। তাদের কাছে কেন জয়কে রেখে গেলেন না? জানতে চাইলে অপু বলেন, শাকিবের পরিবারের কেউ জয়ের কোনো খোঁজখবর নেন না।

কাজের মেয়ের কাছে তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে। এই বিষয়টি সত্যি না উল্লেখ করে অপু আরো বলেন, শেলীর (কাজের মেয়ে) কাছে চাবি দিয়ে গেছি। শাকিব চাইলেই বাসায় ঢুকতে পারতো।

ছেলের মুখের দিকে তাকিয়ে সংসার করছেন বলে জানান অপু। তিনি বলেন, শাকিবের স্ত্রী হিসেবেই থাকতে চেয়েছি। আমার ছেলে যেন পিতৃ পরিচয় নিয়ে বড় হতে পারে তার জন্যই নিজের কথা ভাবিনি। এখন ঘর-সংসার, নামাজ-রোযা নিয়েই থাকতে চাই।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন