শিরোনাম :

তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ অ্যালেন শুভ্র


রবিবার, ৮ এপ্রিল ২০১৮, ০২:০৩ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ অ্যালেন শুভ্র

বিনোদন ডেস্ক: নাট্যপরিচালক নিয়াজ মাহবুবকে ইট দিয়ে আঘাতের অভিযোগে অভিনেতা অ্যালেন শুভ্রকে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই অভিযোগের প্রমাণও পাওয়া গেছে।টেলিভিশন নাটকের তিন সংগঠন-ডিরেক্টরস গিল্ড, অভিনয়শিল্পী সংঘ ও টেলিভিশন প্রোগ্রাম প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ সম্প্রতি এ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যা আগামী ১০ মে থেকে কার্যকর হবে।

ডিরেক্টরস গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক এস এ হক অলিক জানান, নিয়াজ মাহবুবের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ৪ এপ্রিল টিভি নাটকের সংগঠন তিনটি এক সভায় বসে। এরপর শুভ্র’র বিরুদ্ধে এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। তবে অ্যালেনের হাতে থাকা কাজগুলো যাতে গুছিয়ে নিতে পারেন, সেজন্য তাকে কয়েকটা দিন সময় দেওয়া হয়েছে।

এস এ হক অলিক বলেন, ‘কয়েকদিন আগে এ বিষয়টি নিয়ে অ্যালেন শুভ্র ও পরিচালকের সঙ্গে আমরা সবাই বসেছিলাম। অ্যালেন ওই কাজটা করেছে বলে স্বীকারও করে। একজন নির্মাতার গায়ে হাত তোলা কোনোভাবেই উচিত নয়। নির্মাতা কেন, কোনো শিল্পী, টেকনিশিয়ানের গায়েও হাত তোলা উচিত নয়। কোনো বিয়য়ে ভুল বোঝাবুঝি হলে, সেটা নিয়ে আলোচনা হতে পারে। যাই হোক সিনিয়র কিংবা সংগঠনগুলোর সহযোগিতায় সে বিষয়গুলোর সমাধান করা যেতে পারে। আর অ্যালেন তো একজন ভালো অভিনেতা, ওর কাছে এ ধরনের আচরণ প্রত্যাশা করা যায় না। যেহেতু ও ভালো অভিনেতা, তাই তার নিজেকে একটু নিয়ন্ত্রণ করা উচিত। সে জন্যই আমাদের এ সিদ্ধান্ত।’

এ বিষয়ে পরিচালক নিয়াজ মাহবুব বলেন, ‘শাস্তির বিষয়টা আমার জন্যও বেশ কষ্টের, খারাপও লাগছে যে–ওর মতো একজন তরুণ অভিনেতা তিন মাস কোনো ধরনের কাজ করতে পারবে না। ও যদি বিচারের দিন আমার কাছে এসে বলত, ভুল করেছি, স্যরি, তাহলে ওকে আমি সেদিন ক্ষমা করে দিতাম। আমরা সবাই একই মিডিয়ামে কাজ করি। কিন্তু আমি চাইলেই তো সব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারি না। বিচারকরা যেহেতু এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তাই আমি তাদের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই। একজন শিল্পী ভুল করতে পারে, তবে সেটা আবার মার্জনীয়ও হতে পারে।’

পরিচালক, ডিরেক্টরস গিল্ড সূত্রে জানা যায়, ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে ‘গুরাগারা’ নামের একটি পাঁচ পর্বের নাটকের শুটিংয়ে অ্যালেন শুভ্র বরিশালে যান। ওই সময় তার সঙ্গে আলোচনা করেই শিডিউল নেন নির্মাতা। শুটিং শেষ করে ঢাকায় ফেরার দিন নির্মাতা অনুরোধ করে বলেন, আরেকটু কাজ বাকি আছে, তাই লঞ্চে না গিয়ে রাত ১১টায় বাসে যান। কিন্তু শুভ্র নির্মাতার কথা না শুনে ওই রাতেই লঞ্চে করে ঢাকার উদ্দেশে রওনা দেন। এরপর ঢাকায় এসে নির্মাতা তার নাটকের বাকি অংশের শুটিং করেন এবং অ্যালেন তার কাছে আরও পারিশ্রমিক দাবি করেন।

বিষয়টি নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। এর এক বছর পর ২০১৮ সালের ২১ জানুয়ারি রাতে মগবাজারে নির্মাতার সঙ্গে অভিনেতা অ্যালেনের দেখা হয়। তখন কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে অ্যালেন নির্মাতাকে ইট দিয়ে আঘাত করেন।

ঘটনার দিন অ্যালেন শুভ্র ইট দিয়ে মাথায় আঘাত করতে চাইলেও তা পায়ে লাগে বলে দাবি করেন নিয়াজ মাহবুব।

এ বিষয়ে অভিনয়শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম বলেন, ‘ও তো (অ্যালেন শুভ্র) সবার পছন্দের একজন অভিনেতা। তবে একজন পেশাদার শিল্পী হিসেবে কারও সঙ্গে অপেশাদার আচরণ করতে পারে না সে। একজন নির্মাতার গায়ে হাত তুলতে পারে না। তার বিরুদ্ধে সিনিয়র নির্মাতার শিডিউল ফাঁসানোর অভিযোগও আছে। তাই আচরণ সংশোধন করে পেশাদারিত্ব ফিরিয়ে আনার জন্যই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন