শিরোনাম :

বিয়ে করে সুখে থাকুক বাপ্পা: চাঁদনী


বৃহস্পতিবার, ২৪ মে ২০১৮, ১০:২৫ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বিয়ে করে সুখে থাকুক বাপ্পা: চাঁদনী

বিনোদন ডেস্ক: বাপ্পা মজুমদার- তানিয়া হোসাইন বিয়ে করছেন- এমন খবর সম্পর্কে জানতে বাপ্পার স্ত্রী মডেল-অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী চাঁদনীর কাছে জানতে চাওয়া হয়- চাঁদনী যা বলেছেন।

‘আমার আসলে কিছুই বলার নাই। আমার বাপ মারা গেছে আজ ৪৩ দিন। ১৯ মে আমার জন্মদিনের দিন ৪০ দিন হলো। আর ২০ মে শুনলাম এই খবর- এখন আমি কি এগুলো নিয়ে কথা বলবো না আমার বাবা হারানোর শোক সামলাবো? আমার পরিবার নিয়েই এত ব্যস্ত আমি- এত কষ্ট আমার, এখন এগুলা নিয়ে আমি কী কথা বলব, কীভাবে বলব?

২১ মে রাতে আমি বাপ্পাকে ফোন দিলাম।জিজ্ঞেস করলাম যে এসব কী লেখা যে তুমি নাকি কুকুরের খাবার দিতে দিতে অস্থির হয়ে গেছ? কুকুরতো আমি আনি নাই। সেটারও একটা বাজে রিজন আছে- ওটা আমি বলতে চাই না। তখন বাপ্পা বলে- ‘না এটা আমি বলিনি। নেভার! আমি এরকম বলতেই পারি না!’

আমার বাবা মারা গেল। আমার কী কষ্ট, আমার মায়ের কত কষ্ট! এর ভিতরে যদি একটা মানুষ বিয়ে করে, করুক! সে সুখে থাকলে থাকুক! এতদিন ওর যা ইচ্ছা তাইতো করেছে। ডিভোর্স হয়েছে কি হয়নি, আমি সেসব নিয়ে কিছুই বলব না। ওকেই জিজ্ঞাসা করুন আপনারা। ও আসলে কী- এটা সবার জানা উচিত। আমি বলে কাউকে ছোট করব না।

কারণ আমার মা আমাকে শিখিয়েছেন- বৃক্ষ তোমার নাম কী? ফলে পরিচয়! এরচেয়ে বড় কথা আমি আর বলতেই পারব না।

আমার বাপকে আমি হারিয়ে ফেলেছি। আজকে আমি তাজিন আপাকে হারিয়ে ফেললাম। এটা আরেকটা শকিং নিউজ আমার জন্য! আমি তো তা-ও বেঁচে আছি, কিন্তু তাজিন আপুতো কিছুই নিয়ে যেতে পারল না। কোনো সুখই পেল না। কষ্টগুলো বুকে চেপেই চলে গেল ইমোশনাল তাজিন আপা। সঞ্জীবদা’কে যে পরিমাণ ও ভালোবাসত, সেই পরিমাণ ভালোবাসা ও বিশ্বাস কিন্তু ও বাপ্পাকেও করত।

এই তানিয়ার সম্পর্ক নিয়ে কি তাজিন আপা কম দৌড়িয়েছে? প্রথমে দেবাশীষের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে, পরে পার্থ বড়ুয়ার সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক করার জন্য! এখন সেই তাজিন আপা যদি এমন নিউজ শোনে- সে কী করবে বেচারি? না হলে হঠাৎ করে তাজিন আপার হার্ট অ্যাটাক হবে কেন? আমেরিকা থেকে রুমানা ফোন দিয়েছে আমাকে একটু আগেই। ও আমাকে এ কথাটাই বলছে। রিচিরাও কিন্তু এ ব্যাপারটা নিয়ে কথা বলছে, বাইরে কিন্তু ইনডাইরেক্টলি হলেও এটা নিয়েই অনেকে আলোচনা করছে এখন। আল্লাহ আমাদের সবাইকে মাফ করুক।

আমি বাপ্পাকে বলেছি তুমি তোমার কুকুরগুলা নিয়ে যাও। ২টা ছিল, এখন ৩টা হয়েছে। মেয়ে কুকুর। নামও বাপ্পার রাখা- পুটলি। আমাকে সে ডাকতো ‘পুটলির মা’!

যাই হোক আমি বাপ্পার নামে কোনো বদনাম করতে চাই না। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন- যেন আমি শক্ত থাকতে পারি...’

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন