শিরোনাম :

আমার টেবিলেও থাকে পারমাণবিক বোমার বোতাম এটা আরও শক্তিশালী


বুধবার, ৩ জানুয়ারি ২০১৮, ০৩:৫১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

আমার টেবিলেও থাকে পারমাণবিক বোমার বোতাম এটা আরও শক্তিশালী

ডেস্ক প্রতিবেদন: জমে উঠেছে ট্রাম্প আর উনের পারমানবিক বোমা ছোড়ার আগে কথার লড়াই। উত্তর কোরীয় নেতা কিম জং উন সোমবার টেলিভিশনে দেওয়া নববর্ষের ভাষণে কিম যুক্তরাষ্ট্রে ফের পারমাণবিক হামলার হুমকি দিয়ে বলেন, পারমাণবিক বোমা ছোড়ার একটি বোতাম সবসময় আমার টেবিলেই থাকে।

এর প্রতিক্রিয়ায় টুইটে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেন, তার কাছেও পারমাণবিক বোমার বোতাম থাকে, আর তা কিমেরটার চেয়েও বড় এবং বেশি শক্তিশালী। ক্ষয়ে যাওয়া এবং খাদ্যের অভাবে অনাহারে থাকা (উত্তর কোরীয়) শাসনব্যবস্থার কেউ কি তাকে (কিম) দয়া করে বলবেন, আমারও একটি পারমাণবিক বোতাম আছে; এটি তার বোতামের চেয়ে অনেক বড় এবং বেশি শক্তিশালী। আমার বোতাম কাজও করে,”

বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পারমাণবিক অস্ত্রধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টর আছে পারমাণবিক হামলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেওয়ার তাৎক্ষণিক এখতিয়ার; কিমকে দেওয়া জবাবে ট্রাম্প সেদিকেই ইঙ্গিত করতে চেয়েছেন বলে মন্তব্য বিবিসির।

গত কয়েক বছর ধরে ক্ষেপণাস্ত্র সক্ষমতা বাড়াতে কাজ করছে উত্তর কোরিয়া। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে আন্তর্জাতিক চাপ ও নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই একের পর এক দূরপাল্লার আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে তারা। সেসব ক্ষেপণাস্ত্রের আওতায় এখন যুক্তরাষ্ট্রের পুরো ভুখণ্ড আছে বলেও দাবি পিয়ংইয়ংয়ের।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী অনেকেই বলছেন, ট্রাম্পের ডেস্কে একটি বোতাম ছাড়া অন্য কোনো বোতাম কখনোই চোখে পড়েনি; ওই বোতাম দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বেয়ারাকে ডায়েট কোক আনতে সঙ্কেত দেন, পারমাণবিক হামলার নয়।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন