শিরোনাম :

পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ৮৯ বছর বয়সী 'নাত্‍‌সি' নারী


মঙ্গলবার, ৮ মে ২০১৮, ০৯:২৪ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ৮৯ বছর বয়সী 'নাত্‍‌সি' নারী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: গণহত্যার ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অপরাধে কারাদণ্ড হওয়া সত্ত্বেও পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন ৮৯ বছর বয়সী এক নারী।

১৯৪০-৪৫ সালে নাত্‍‌সি সরকারের আমলে ইউরোপে ইহুদি গণহত্যায় সামিল থাকার অভিযোগে একাধিক বার দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন উরসুলা হ্যাভারবেক নামে জার্মানির এই বৃদ্ধা।

গত অক্টোবর মাসে জার্মান সংবাদমাধ্যমে 'নাত্‍‌সি ওমা' (নাত্‍‌সি ঠাকুমা) নামে পরিচিত এই মহিলাকে মোট আটটি হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে দুই বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। ২৩ এপ্রিলের মধ্যে জেলে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়া সত্ত্বেও তিনি তা পালন করেননি।

সরকারি আইনজীবীদের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, 'নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে কারাদণ্ড ভোগ করার জন্য আসামি জেলে উপস্থিত না হওয়ায় ২০১৮ সালের ৪ মে আদালত পুলিশকে ওই নির্দেশ পালনের দায়িত্ব দিয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত ওই আসামিকে গ্রেপ্তার করা যায়নি।'

পুলিশি নথি বলছে, চরম দক্ষিণপন্থী এক সংগঠনের চেয়ারম্যান হিসেবে কয়েক বছর আগে দায়িত্ব পালন করেন হ্যাভারবেক। ইহুদি গণহত্যা মামলার একটি শুনানিতে ২০১৫ সালে তিনি কুখ্যাত নাত্‍‌সি হত্যাশিবির তথা কনসেনট্রেশন ক্যাম্প হিসেবে আউশউইত্‍জকে চিহ্নিতকরণের বিরোধিতা করেন। তার দাবি, ঘোষণার পিছনে এখনও পর্যন্ত সুনিশ্চিত প্রমাণ পাওয়া যায়নি। তাই তার মতে আউশউইত্‍জ এক 'নিছক লোকবিশ্বাস' ছাড়া কিছু নয়।

এতেই ক্ষান্ত না হয়ে এক টিভি শো-তে বৃদ্ধা জানিয়েছেন, 'ইতিহাসের সবচেয়ে বড় মিথ্যে হল ইহুদি নিধন যজ্ঞ (Holocaust)'। যদিও ইতিহাস মনে রেখেছে, ১৯৪০-৪৫ সালের মধ্যে অ্যাডল্ফ হিটলারের নাত্‍‌সি সরকারের উদ্যোগে প্রায় ১১ লক্ষ নিরপরাধ ইহুদি নাগরিককে আউশউইত্‍‌স ও বার্কেনাউ শিবিরে নির্বিচারে হত্যা করা হয়।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন