শিরোনাম :

নিপা ভাইরাসে নিহত ১৬


শনিবার, ২ জুন ২০১৮, ১০:৫২ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

নিপা ভাইরাসে নিহত ১৬

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভয়ঙ্কর নিপা ভাইরাসের সংক্রমণে আরও ২ জনের মৃত্যু হল কেরলে। এই নিয়ে সেখানে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১৬। কলকাতাতেও কেরলের এক জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে কয়েকদিন আগে। মনে করা হচ্ছে নিপা ভাইরাসের সংক্রমণেই তাঁর মৃত্যু হয়। তবে, এখনও পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট পরীক্ষার রিপোর্ট আসেনি।

কেরলের স্বাস্থমন্ত্রী কেকে শৈলজা জানিয়েছেন, কোজিকোডে নতুন করে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাসিন নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার নিপা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় এক আইনজীবীর। তিনি বলেন, পরিস্থিতি মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই কাজ শুরু করেছে সরকার। আগামী ৫ জুন পর্যন্ত প্রাথমিকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে স্কুল-কলেজ। এই রোগের সংক্রমণে ভর্তি বা যাদের মধ্যে এই ভাইরাস লক্ষণ দেখা গেছে, তাদের আলাদা করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শুধু তাই নয়, হাসপাতালগুলোতে চিকিত্সার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

এদিকে, নিপা ভাইরাস আতঙ্কে এবার নতুন ব্যবস্থা নিল দক্ষিণ-পূর্ব রেল। দূরপাল্লার ট্রেনগুলিতে বন্ধ করা হল ফল বিক্রি। প্রিমিয়াম ট্রেনগুলিতেও খাবারের সঙ্গে আপাতত ফল দেওয়া বন্ধ করা হল।

শুধু কেরলেই নয়, নিপা ভাইরাসের আতঙ্ক ছড়িয়েছে এরাজ্যেও। বাজারে লিচু, কালোজাম বিক্রি প্রায় বন্ধ। কলকাতার বেলেঘাটা আইডি হালপাতালে বাড়ছে নিপা সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা। পূর্ব মেদিনীপুরের ঘাটালের বাসিন্দা উত্তম ভৌমিক। বছর ছত্রিশের উত্তম মঙ্গলবারই কেরল থেকে ফিরেছিলেন। তারপর ধূম জ্বর। রক্তে প্লেটলেটের সংখ্যা কমেছে। ঝুঁকি না নিয়ে বুধবারই বেলেঘাটা আইডিতে ভর্তি করা হয় উত্তমকে। নিপা সন্দেহে আইসোলেশন ওয়ার্ডেই রাখা হয়েছে তাঁকে।

কলকাতায় কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে পড়াশুনার জন্যে এসেছেন বাংলাদেশের ফুয়াদ বিন জাফর। বুধবার সকালে তাঁকেও বেলেঘাটা আইডিতে ভর্তি করা হয়েছে। ফুয়াদের শরীরেও নিপা সংক্রমণের উপসর্গ দেখা দিয়েছে। জ্বর-গা হাতপা ব্যথা নিয়ে আলিপুরের কম্যান্ড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন সেনাজওয়ান শিনুপ্রসাদ। বাড়ি কেরলের। ফোর্ট উইলিয়ামে কর্মরত ছিলেন। একমাসের ছুটিতে কেরলে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন। ১৩ মে কলকাতায় ফিরে কাজে যোগ দেনশিনুপ্রসাদ। ২০ তারিখ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে সেনা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২৫ মে মৃত্যু হয় শিনুর। মৃত্যুর পর দেহেরফ্লুইড পাঠানো হয়েছে পুণের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ ভায়রোলজিতে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন