শিরোনাম :

'ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে স্মার্ট ফেন্সিং'


মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৭:০২ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

'ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে স্মার্ট ফেন্সিং'

ডেস্ক: নয়াদিল্লি পরিকল্পনা করছে ভারত ও বাংলাদেশ সীমান্ত বরাবর স্মার্ট ফেন্সিং বসানোর৷পরের সপ্তাহেই অসমের ধুবরি সেক্টর লাগোয়া ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে স্মার্ট ফেন্সিং বসানোর কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং৷ অনুপ্রবেশ রুখতে এই ধরণের ব্যবস্থা অত্যন্ত কার্যকরী বলে জানানো হয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়৷

ভারত পাকিস্তান সীমান্তে বিশেষত জম্মু লাগোয়া এলাকায় স্মার্ট ফেন্সিং বসানোর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় গত বছরেই৷ অন্যদিকে ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে স্মার্ট ফেন্সিং বসানোর সিদ্ধান্ত হয় তারপরেই৷ বিএসএফ জানায় কম্প্রেহেনসিভ ইন্টিগ্রেটেড বর্ডার ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় এই স্মার্ট ফেন্সিং বসানোর কাজ শুরু করা হবে৷

বাংলাদেশ লাগোয়া সীমান্ত এলাকায় কড়া নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই এই ধরণের ফেন্সিং বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে বিএসএফের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে৷ সোমবার এই সংক্রান্ত দুটি মুল প্রকল্পের উদ্বোধন করা হয়৷ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের হাত দিয়ে এই উদ্বোধন হয়৷

গত বছর বিএসএফ জানিয়েছিল অনুপ্রবেশ রুখতে পাক সীমান্তে যে স্মার্ট ফেন্সিং বসানো চলছে, তার কাজ শেষ হবে ২০১৮–র মার্চের মধ্যেই৷ তখনই জানানো হয়েছিল যে ভারত–বাংলাদেশ সীমান্তেও বসানো হবে এই অত্যাধুনিক ফেন্সিং।

স্মার্ট ফেন্সিং দিয়ে ভারত বাংলাদেশ সীমান্ত একেবারে সিল করে দেওয়া হবে৷ দেশটিরস্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রেস বিবৃতিতে জানানো হয়েছে দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তার সঙ্গে কোনও আপোস নয়৷ ভবিষত্যে এই ধরণের ফেন্সিংয়ের ব্যবহার বাড়নো হবে৷ দেশের বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় স্মার্ট ফেন্সিং বসানোর কাজ শুরু করার চিন্তা ভাবনা করছে কেন্দ্র বলে জানানো হয়েছে৷ নতুন এই ফেন্সিং অত্যন্ত শক্তিশালী বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী৷ ভারত–পাক সীমান্তের পুরোটাই এই ফেন্সিং দিয়ে একেবারে সিল করে দেওয়া হবে বলেও জানানো হয়েছে৷ তাই জম্মু থেকে শুরু করা হয় কাজ৷ এবার নজর ভারত বাংলাদেশ সীমান্তের দিকেও৷

তবে জম্মুর পরে বাংলাদেশ কেন? সেই প্রশ্নের উত্তরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিজিবি–র সঙ্গে প্রতিনিয়ত পেট্রোলিং করছে বিএসএফ। কোনও সমস্যা হলে আলোচনার মাধ্যমে তার সমাধান করা হচ্ছে। ভারত–পাকিস্তান সম্পর্কের অবনতি হওয়ার পরেই সীমান্তে প্রাচীর মজবুত করার কথা বলা হয়েছিল৷ এবার বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশকারীদের ঠেকাতে স্মার্ট ফেন্সিংয়ের ব্যবহার করবে ভারত৷

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন