শিরোনাম :

খাশোগিকে টুকরো টুকরো করা হয়


বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ০২:২৮ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

খাশোগিকে টুকরো টুকরো করা হয়

আন্তর্জাতিক: সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যা করে টুকরো টুকরো করা হয়। সৌদি কনসাল জেনারেলের টেবিলে ওপর যখন ওপর হামলা চালানো।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল একটি অডিও রেকর্ডিংয়ের বরাতে বুধবার এসব তথ্য জানায়।

সূত্র জানায়, খাশোগিকে কোনো রকম জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়নি। তাকে খুন করাই ছিল হত্যাকারীদের মূল উদ্দেশ্য। হত্যাকারীরা তাদের পরিকল্পনা মাফিক তাকে হত্যা করে।

এ মাসের ২ তারিখ ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশের পর হত্যা করা হয় খাশোগিকে। এ সময় খাশোগির হাতে অ্যাপল ওয়াচের রেকর্ডিং চালু ছিল। মৃত্যুকালীন অ্যাপল ওয়াচের রেকর্ডকৃত কথোপকথন তাদের হাতে এসেছে।

সূত্রটি আরো জানায়, খাশোগিকে টেনেহিঁচড়ে কনসাল জেনারেলের অফিস থেকে পাশের রুমের একটি টেবিলের কাছে নেয়া হয় এবং সেখানেই তাকে টুকরো টুকরো করা হয়।

সাউন্ড রেকর্ডে খাশোগির চিৎকার শোনা গেছে। তার চিৎকার বন্ধ করতে শরীরে চেতনানাশক ওষুধের ইনজেকশন দেয়া হয় এবং এর কিছুক্ষণ পর তিনি নীরব হয়ে যান।

মঙ্গলবার তুর্কি পুলিশ বলেছিল, ইস্তানবুলের সৌদি কনস্যুলেটে খাশোগিকে হত্যা করা হয় এবং কেটে টুকরো টুকরো করা হয়। এ বিষয়ে তাদের যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণ আছে।

ওই দিনই তুরস্কের একজন সরকারি কর্মকর্তা সিএনএনকে জানিয়েছেন, পুলিশ বিশ্বাস করে খাশোগিকে নির্মমভাবে টুকরো টুকরো করা হয়েছে। এর আগে নিউইয়র্ক টাইমসও তাদের প্রতিবেদনে একই তথ্য দেয়।

তুরস্কে থাকা সৌদি কনস্যুলেট থেকে জামাল খোশেগির নিখোঁজ হওয়ার পর সবার সন্দেহের তীর সৌদি আরবের দিকেই। তুরস্ক বলছে, খাশোগিকে কনস্যুলেটের ভেতরেই হত্যা করার যথেষ্ট প্রমাণ তাদের হাতে আছে।

খাশোগিকে হত্যার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসছে সৌদি সরকার। যদিও আন্তর্জাতিক কিছু সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে- খাশোগিকে হত্যার বিষয়ে স্বীকারোক্তি দিতে প্রস্তুতি নিচ্ছে তারা।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন