শিরোনাম :

পরিবারে স্বামী-স্ত্রী উভয়ের দায়িত্ব ও কর্মক্ষেত্র আলাদা


রবিবার, ৭ এপ্রিল ২০১৯, ০৪:০৮ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

পরিবারে স্বামী-স্ত্রী উভয়ের দায়িত্ব ও কর্মক্ষেত্র আলাদা

আন্তর্জাতিক: মিসরের প্রাচীন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান আল আজহার বিশ্ববিদ্যায়ের প্রধান ডা. আহমদ তাইয়্যেব বলেছেন, নারী-পুরুষের সমান অধিকারের ধারণাটি ইসলামের মৌলিক শিক্ষা এবং প্রকৃতির স্বাভাবিক নিয়মের বিপরীত চিন্তা।

মিসরের গ্র্যান্ড ইমাম বলেন, পরিবার হলো একটি রাষ্ট্রের মতো। রাষ্ট্রের যেমন একজন প্রধান থাকেন, তেমনি পুরুষ হলো পরিবারের প্রধান।সম্প্রতি দেয়া এক বক্তৃতায় এসব মন্তব্য করেন তিনি।

ডা. আহমদ বলেন, পারিবারিক ব্যবস্থাপনা পৃথিবীতে আল্লাহর খিলাফতের একটি নিদর্শন। এতে ভাঙন সৃষ্টি করা মানে আল্লাহর নির্ধারিত নিয়মে ব্যত্যয় ঘটানো। পরিবার একটি পবিত্র ধর্মীয় চুক্তি। এতে সবার কিছু দায়িত্ব ও অধিকার রয়েছে। পরিবারে স্বামী-স্ত্রী উভয়ের দায়িত্ব ও কর্মক্ষেত্র আলাদা।

নারী-পুরুষের সমান অধিকারের বিষয়টি বাস্তবসম্মত নয় দাবি করে শাইখুল আজাহার জানান, পরিবারের প্রধান কখনও নারীরা হয় না। কারণ একটি পরিবারের জটিল বিষয়গুলো পুরুষেরই সমাধান করতে হয়। তাই যারা নারী-পুরুষের সমান অধিকার দাবি করে, তারা নারীদের কল্যাণকামী নয়। সমান অধিকারের ফলে পাশ্চাত্যের পারিবারিক ব্যবস্থাপনা ভেঙে পড়েছে। পাশ্চাত্যের এ ধারণা বাস্তবায়নযোগ্য নয়।

সমান অধিকারের নামে নারীকে পুরুষের বিরুদ্ধে দাঁড় করানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন মিসরের এ ধর্মীয় প্রধান।

তিনি বলেন, শুধু মানবসমাজেই নয়, পশুরাও পারিবারিক জীবনযাপন করে। পরিবারের মূল দায়িত্ব পুরুষকেই আদায় করতে হয়। সমান অধিকারের নামে এখন নারীকে পুরুষের বিরুদ্ধে দাঁড় করানো হচ্ছে।

শাইখুল আজহার জানান, পুরুষই পরিবারের প্রধান আমরা এটি বলছি না। বরং নারীর সাহায্য নিয়েই পুরুষকে চলতে হয়। উভয়ের যৌথ প্রচেষ্টায় পারিবারিক ব্যবস্থাপনা টিকে আছে। নারী-পুরুষকে মুখোমুখি দাঁড় করানো উচিত নয়।

সূত্র: আল আরাবিয়্যাহ

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন