শিরোনাম :

মানবাধিকার লঙ্ঘন ঢাকতেই রাখাইনে ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন: জাতিসংঘ


বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯, ০৪:২২ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

মানবাধিকার লঙ্ঘন ঢাকতেই রাখাইনে ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন: জাতিসংঘ

আন্তর্জাতিক: পশ্চিমাঞ্চলীয় রাখাইন ও চিন রাজ্যের সংঘাতপূর্ণ নয়টি এলাকায় মোবাইল ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবস্থা বন্ধ করে দিয়ে মিয়ানমার সরকার হয়তো কোনো ভয়াবহ মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জাতিসংঘের বিশেষ দূত ইয়াংহি লি।

তিনি জানান, উক্ত অঞ্চলটিতে মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবস্থা সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। কোনো সংবাদমাধ্যম এমনকি কোনো মানবিক সাহায্যও পৌছাঁতে দেয়া হচ্ছে না সেখানে।

এক বিবৃতিতে তিনি শঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, “যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ করে দেয়ায় সেখানকার স্থানীয় লোকজন বাহিরে যোগাযোগ করতে পারছে না। এছাড়া বাহির থেকেও তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছে না। ফলে সেখানকার সব বেসামরিক লোকদের নিয়ে আমি দুশ্চিন্তায় আছি।”

ইয়াংহি লি আরো বলেন, “আমাকে বলা হয়েছে যে মিয়ানমার সেনাবাহিনী সেখানে শুদ্ধি অভিযান পরিচালনা করছে। আমরা এরইমধ্যে সবাই জানি যে তারা হয়তো এটা বেসামরিক লোকদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঢাকার উদ্দেশ্যে করে থাকতে পারে।”

রাখাইনে বর্তমানে মিয়ানমার সেনাবাহিনী স্থানীয় বৌদ্ধ বিদ্রোহী আরাকান আর্মির বিরুদ্ধে লড়ছে। আরাকান আর্মি অনেক দিন ধরেই আরাকান অর্থাৎ রাখাইন রাজ্যের স্বাধীণতার জন্য সংগ্রাম করে আসছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, গেল ছয়মাসে উভয় পক্ষই তাদের মধ্যকার সংঘাতে মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে।

গেল ২১ জুন মিয়ানমারের পরিবহন ও যোগাযোগ মন্ত্রণালয় জানায়, অঞ্চলটিতে বিদ্রোহীরা অবৈধ কার্যকলাপের কাজে ইন্টারনেট সেবা ব্যবহার করছে। এ অভিযোগে তারা ২০১৩ সালের টেলিযোগাযোগ আইন অনুযায়ী ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়।

ইয়াংহি লি মিয়ানমার সরকারকে অচিরেই সেই অঞ্চলে ইন্টারনেট সংযোগ চালু করার আহ্বান জানিয়েছেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন