শিরোনাম :

কেমন হবে ঈদের সকালের সাজ


বৃহস্পতিবার, ৩১ আগস্ট ২০১৭, ১০:২৮ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

কেমন হবে ঈদের সকালের সাজ

ডেস্ক প্রতিবেদন: ঈদের দিন সকালে সকালের সাজ দিনের প্রথম সাজ তো বটেই ঈদের দিনের সাজসজ্জাও শুরু হয় এর মধ্য দিয়ে। সকালের সাজ অবশ্যই হালকা হতে হবে। তাতেই স্নিগ্ধ দেখাবে। যারা সাধারণত সাজতে পছন্দ করেন না, তারাও ঈদের দিন নিজেকে একটু সাজাতে পারেন। ঈদের দিন সকালে বাড়িতে থাকলে এক ধরনের সাজ হবে। আর যদি কেউ সকালে বেরিয়ে পড়তে চান, সাজে হালকার মধ্যেই একটু জমকালো ভাব আনতে হবে। সাজটা পরিমিত হতে হবে কিন্তু তাতে উৎসবের ছোঁয়া থাকবে।

সকালে গোসল করে পছন্দের পোশাক পরে নিতে পারেন। সকাল থেকেই অতিথি আসা শুরু হয়। তাদের সাদরে অভ্যর্থনা জানাতে গিয়ে নিজের দিকে খেয়াল করার সময় হয় না। তাই সকালে উঠেই নিজেকে সাজিয়ে নিতে হবে।

প্রথমে মুখে হালকা কমপ্যাক্ট পাউডার বুলিয়ে নিন। সকালের সাজের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ চোখের সাজ। কাজল, মাশকারা ও আইলাইনার ব্যবহারে সাজ পূর্ণতা পায়। চোখের সাজের ক্ষেত্রে পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে বা কনট্রাস্ট করে আইশ্যাডো দিতে পারেন। তবে সকালের সাজে পাউডার আইশ্যাডো ব্যবহার করতে হবে। কোনো ধরনের তরল আইশ্যাডো, ক্রিম বা গ্লিটার দেয়া আইশ্যাডো ব্যবহার করা উচিত নয়।

এরপর আইলাইনারের টানে অাঁকতে হবে চোখ। চাইলে কাজলও আইলাইনারের মতো করে ব্যবহার করা যেতে পারে। শুধু কাজল দিয়ে চোখের সাজ এখন বেশ ট্রেন্ডি। যারা সাজতে পছন্দ করেন না, তারা শুধু কমপ্যাক্ট পাউডার ও কাজল দিয়েই পুরো সাজ পূর্ণ করতে পারেন।

ঈদের দিন সকালে বাইরে গেলে ত্বকের সঙ্গে মিলিয়ে ফাউন্ডেশন প্রথমে ব্যবহার করুন। কিন্তু ভালোভাবে যেন মিশে যায়, তা খেয়াল রাখতে হবে। দিনের বেলার জন্য হালকা গোলাপি, মভ কিংবা বাদামি রঙ বেছে নিতে পারেন। বস্নাশনের ব্রাশ বোলানোর পর কমপ্যাক্ট বা ফেস পাউডার ব্যবহার করতে হবে। ঠোঁট হালকা রঙের লিপস্টিক দিয়ে রাঙাতে পারেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন