শিরোনাম :

কেমন হবে পূজার সাজ


শুক্রবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১২:৩৩ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

কেমন হবে পূজার সাজ

ডেস্ক প্রতিবেদন: অন্যান্য দিনগুলোর তুলনায় উৎসবের দিনগুলোতে একটু ভিন্ন রূপে থাকতে স্পেশাল সাজগোজের দরকার হয়। আর তা যদি হয় পূজার সময় তাহলে তো কথাই নেই। প্রতিদিন ভিন্ন সাজ এবং ভিন্ন পোশাকে নিজেকে আলাদা দেখাতে চেষ্টা করেন সকলেই। পূজার সময় বিশেষ করে ষষ্ঠী থেকে দশমী পর্যন্ত পুরোদমে চলে পূজার উৎসব। আর সে সময়টায় লুকটাও একটু আকর্ষণীয় হওয়া চাই। ষষ্ঠীর হালকা সাজটাই দশমীতে গাঢ় হয়ে উঠে। তাই সতর্ক ভাবে সাজগোজ করা ভালো। চলুন তবে দেখে নেয়া যাক সময়ভেদে কেমন হতে পারে পূজার সাজগোজ।

পূজায় দিনের সাজ: পূজার সময় দিনের বেলার সাজটা বেশ উজ্জ্বল তবে হালকা হওয়াটাই ভালো। কারণ দিনের বেলা মন্দিরে পূজার অঞ্জলি দেওয়ার সময় শুভ্র ও স্নিগ্ধ ভাবটা যাতে থাকে সেদিকে নজর দেয়া উচিৎ।

-প্রথমে সানস্ক্রিন ত্বকে লাগিয়ে হালকা বেইজ মেকআপ দেয়া উচিৎ ত্বকের রঙের সাথে মিলিয়ে। হালকা করে ফাউন্ডেশন লাগিয়ে নিন এর ত্বকের ওপর।

- যদি প্যানকেক দিতে চান তবে খুব সাবধানে হালকা করে দিয়ে একটি ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন পুরো ত্বক।

- এরপর এর ওপর লাগিয়ে নিন একটু উজ্জ্বল রঙের মেকআপ পাউডার। ব্যস বেইজ তৈরি হয়ে গেল।

- চোখের সাজে অফ হোয়াইট হাই লাইটস, বাদামি ও কালো রংয়ের মিশ্রনে অথবা পোশাকের রংয়ের সঙ্গে মিশিয়ে হালকা রংয়ের আইশ্যাডো ব্যবহার করুন। পেন্সিল আই লাইনার অথবা শুধু কাজলের একটা হালকা রেখা টেনে চোখের সাজে আনতে পারেন স্নিগ্ধতা।

- ঠোঁটে পোশাকের রঙের সাথে মিলিয়ে হালকা যে কোনো রঙের লিপস্টিক বা কোরাল কিংবা হালকা গোলাপি লিপস্টিক অথবা লিপগ্লস লাগাতে পারেন। কিংবা টকটকে লাল রঙের লিপস্টিকও পূজার শাড়ি বা পোশাকের সাথে মিলিয়ে পড়তে পারেন।

- খুব হালকা করে ব্লাশঅন দেবেন দিনের বেলা। হালকা বাদামি, গোলাপি কিংবা পীচ রংয়ের ব্লাশঅন লাগান।

- চুলটা ভালো করে পোশাকের ধাঁচের সাথে মিলিয়ে বেঁধে নিন, যাতে বাড়তি ঝামেলা পোহাতে না হয়। পূজায় চুল বাঁধলে দেখতেও বেশ ভালো লাগে। খোঁপা করলে খোঁপায় গুজতে পারেন ফুল কিংবা বেণী করে চুল বাঁধলেও পছন্দ করে ফুল দিতে পারেন। বিবাহিতা হলে বড় করে কপালে লাল টিপ ও সিঁথিতে সিঁদুর দিন। ব্যস আপনি পূজার জন্য একেবারেই তৈরি।

- পোশাকের সাথে মিলিয়ে গহনা পড়ুন। দিনের বেলা ফুলের গহনা ব্যবহার করতে পারেন। কিংবা পোশাকের সাথে মিলিয়ে পার্ল ও পুঁতির গহনা পড়তে পারেন।

কেমন হবে পূজার সাজ


পূজায় রাতের সাজ: সন্ধ্যার পর পূজার জন্য একটু গাঢ় করে সাজতে পারেন। তাই রাতের মেকআপ একটু ভালো করে করে নিন।

- প্রথমে চোখের আশপাশে এবং দাগ থাকলে সেটা ঢাকার জন্য কনসিলার ব্যবহার করে তা ঢেকে নিন। এর উপরে ফাউন্ডেশন লাগিয়ে স্পঞ্জ করে বেইস মেকআপ করে নিন।

- এর উপর ফেইস পাউডার দিন। এবার ভেজা স্পঞ্জ দিয়ে আরও একবার ভালো করে ব্লেন্ড করুন।

- সিলভার রংয়ের হাইলাইটস দিয়ে একটু গাঢ় রঙের আইশ্যাডো ব্যবহার করুন রাতের সাজে। আইলাইনার ও কাজল দিয়ে মোটা করে চোখ আকিয়ে নিন। চোখের পাপড়ি ঘন ও বড় দেখানোর জন্য ২-৩ বার মাশকারা ব্যবহার করুন।

- চোখের মেকআপ গাঢ় হলে লিপস্টিকের রঙ হালকা দেয়ার চেষ্টা করুন।

- পোশাক ও সাজের সঙ্গে মানানসই করে চুলের স্টাইল করে নিন।খোঁপা, লম্বা বেণী, খোলা চুলেও বেশ লাগবে। এছাড়া চুল স্ট্রেইট বা কার্ল করেও স্টাইল করতে পারেন। পূজার সময় চুলে ফুল থাকা ভালো। তাই যে স্টাইলই করুন না কেন চুলে ফুল গুঁজে নিন।

- পোশাকের সাথে মিলিয়ে গহনার প্রতিও নজর দিন। মেটালের গহনা বেশ ভালো লাগবে রাতের বেলা।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন