শিরোনাম :

চুলে তেল লাগানোর কিছু নিয়ম


রবিবার, ২৬ নভেম্বর ২০১৭, ০৮:৫০ পূর্বাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

চুলে তেল লাগানোর কিছু নিয়ম

ডেস্ক প্রতিবেদন: শ্যাম্পু করার আগে চুলে তেল লাগান।ভালো করে তেল ম্যাসাজ করেন চুলের গোড়ায়।কিন্তু, এরপরও চুলের স্বাস্থ্য ফেরে না কিছুতেই।আসলে, চুলে তেল লাগানোরও কিছু নির্দিষ্ট নিয়ম আছে।সেগুলি না মানলে চুল পুষ্টি তো পায়ই না, উলটে ক্ষতি হয়।জেনে নিন, চুলে তেল লাগানোর সময় কোন কোন বিষয়গুলি মাথায় রাখতে হবে-

তেল গরম করুন: ঠান্ডা তেল দিয়ে ম্যাসাজ করা আর সামান্য গরম তেল দিয়ে ম্যাসাজ করার মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে।গরম তেল চুলে লাগালে অনেক বেশি আরাম পাওয়া যায়।আর এই তেল সহজেই মাথার ভিতর পৌঁছে যায়।তাই, মাথায় লাগানোর আগে তেল হালকা গরম করে নিন।

হালকা ম্যাসাজ করুন: গরম তেল দিয়ে ম্যাসাজ করলেই শুধু হবে না, কীভাবে ম্যাসাজ করবেন, তাও জানতে হবে।খুব জোরে জোরে ম্যাসাজ করলে চুল গোড়া থেকে দুর্বল হয়ে যায়।জটও পড়ে বেশি।তাই, হালকা হাতে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ম্যাসাজ করুন।চুল ভালো থাকবে।

চুল আঁচড়ান: তেল লাগানোর আগে চুল আঁচড়ে নিলে খুব সহজেই নষ্ট হতে পারে আপনার চুল।জট পড়া চুলে তেল লাগালে আরও বেশি জট পড়ে যায়। চুলের গোড়া ফাটার সমস্যা দেখা দেয়।তাই, তেল লাগানোর আগে জট ছাড়িয়ে নিন।কাঠের চিরুনি দিয়ে আঁচড়াতে পারলে আরও ভালো ফল পাওয়া যায়।আঁচড়ানোর ফলে রক্ত চলাচল স্বাভাবিক হয়।চুল ও মাথার ত্বক সুস্থ থাকে।

চুলের ডগায় তেল লাগান: তেল লাগানোর সময় মাথার ত্বকে অর্থাৎ চুলের গোড়াতেই বেশি ম্যাসাজ করা হয়।চুলের বাকি অংশগুলিরও সমানভাবে যত্ন প্রয়োজন সেকথা খেয়ালই থাকে না।আসলে, চুলের সবথেকে স্পর্শকাতর অংশ হল ডগা।ধুলো-ধোঁয়া, সূর্যের তাপ বা বাহ্যিক নানা কারণে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় চুলের ডগা।তেল লাগানোর সময় তাই চুলের গোড়ার পাশাপাশি ডগাতেও ভালো করে তেল লাগান।লম্বা চুল হলে তা কয়েকটি ভাগে ভাগ করে নিয়ে পুরো চুলে সমানভাবে তেল মাখুন।

সময় দিন: চুল ভালো রাখতে তেল লাগান।আর একবার পুরো চুলে তেল লাগানো হয়ে গেলেই তা ধুয়ে ফেলেন চটজলদি।এভাবে চুল মোটেই পুষ্টি পায় না।সুস্থ ও জেল্লাদার চুল পেতে তেল মাখার পর তা মাথায় বসার সময় দিন। পুরো চুলে তেল ম্যাসাজ করার পর গরম করা টাওয়েল মাথায় কিছুক্ষণ জড়িয়ে রাখুন।তারপর হালকা গরম জল দিয়ে মাথা ধুয়ে নিন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন