শিরোনাম :

আধুনিকা হয়ে ওঠার সাজগোজ টিপস


সোমবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০১:০৪ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

আধুনিকা হয়ে ওঠার সাজগোজ টিপস

ডেস্ক: মানুষ আমরা কি শুধু প্রিয়জনের জন্যই সাজগোজ করি ! তোমাদের কথা ঠিক জানিনা, আমি কিন্তু নিজে নিজের জন্যই সেজে থাকি। স্কুলের গণ্ডি পেরিয়ে কলেজে পা রাখার সময় থেকেই আমরা ব্যস্ত জীবনের ঘেরাটোপে আটক পড়ি। নিজেকে সুন্দরভাবে দেখতে প্রায় ভুলেই যাই। চিন্তা নেই ! আজ কয়েকটা মেকাপ টিপস নিয়ে এসেছি। যা তোমাদের অল্প সময়ের মধ্যে এনে দেবে এক আলাদা লুক।

বাঙালী মেয়েদের সাজ যে আর পাঁচজনের থেকে আলাদা তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। বিনা মেকাপেও সুন্দরী দেখায় মেয়েরা। তাদের যেন এক নিজস্ব ধরন আছে যা শুধু তারাই জানে। কিন্তু বিশ্বায়নের এই সময়ে বাঙালী মেয়েদের সেই সাবেকীয়ানা হারিয়ে যাচ্ছে দিনে দিনে। আজ বেশি কিছু বলবো না। শুধু কয়েকটা সাজার টিপস দেব। যাতে আধুনিকা হয়ে ওঠার সাথে সাথে বাঙালীয়ানাও বজায় থাকে।

পাঁচ রকমের টিপস
রোজ কলেজ, অফিস যারা যাও তারা কুর্তি , টপ , চুড়িদার পর নিশ্চয়ই। এবার তাহলে পোশাকের সাথে তাল মিলিয়ে একটু নিজেকে সাজিয়ে নাও খুব সহজে।

‘টিপ’ শুনলেই মনে হয় বড্ড সেকেলে সেকেলে। কিন্তু এই ‘টিপ’ এককালে ছিল বাঙালী নারীর শোভার অন্যতম উপকরণ। ‘টিপ’ কি শুধু শাড়ির সাথে শোভা পায় ? না। যেকোনো পোশাকে ‘টিপ’ পরা যেতেই পারে। খেয়াল রাখতে হবে কি ধরনের সাজতে চাইছি সে বিষয়ে। শাড়ি পরলে ‘টিপ’ শাড়ির রঙের সাথে মিলিয়ে আমরা সাধারনত পরে থাকি। কুর্তি বা টি-শার্টের ক্ষেত্রে লাল বা কালো পোশাকের রঙের সাথে সামঞ্জস্য বজায় রেখে পরতেই পারেন।

সাজ মানেই একগাদা রংচঙ মেখে সঙ সাজা নয়। সাজগোজ বিষয়টাই পুরো মুডের ওপর নির্ভর করে। বাইরে যাবেন কিন্তু মুড নেই সাজার, ভাববেন না । হালকা করে চোখে কাজল লাগিয়ে নিন। যেকোনো পোশাক পড়ুন। শুধু চোখে কাজল লাগান হালকা বা গাঢ়। ইচ্ছে মত আইলাইনার দিতে পারেন।

ছোট্ট টিপ হালকা লিপস্টিক আর বঙ্গললনা। ঠিকই ধরেছেন ! লিপস্টিক। লিপস্টিক দিয়ে ঠোঁট রাঙানো মানেই সাজ নয়। কিভাবে কি ধরনের পোশাকের সাথে লিপস্টিক পরবেন সেটাই আসল কথা। শুধু মাত্র শাড়ি বা সালোয়ার পরলেই লিপস্টিক লাগাবেন একদমই না। টি- শার্টের সাথে লিপস্টিক ট্রাই করুন, দেখবেন অনেক বেশি সুন্দর ও স্মার্ট দেখাছেন।

অলংকার হল মেয়েদের শোভা। কানের দুল ছাড়া মেয়েদের সাজ সম্পূর্ণতা পায় না। শাড়ি পরলেই আমরা ঝুমকো বা ঝোলা দুল পরে থাকি। টপ বা টি-শার্টের সাথে ঝুমকো ট্রাই করে দেখতে পারেন। বেশ অন্যরকম দেখাবেন। টি – শার্টের সাথে ঝুমকো পরলে গাঢ় করে কাজল লাগাবেন। বেশি সুন্দরী দেখাবেন।

সাজের ক্ষেত্রে সব সময় চুল নিয়ে সমস্যায় পরতে হয়। যাদের ছোট চুল তারা ঠিক সামলে নেন কিন্তু সমস্যা দেখা দেয় বড় চুলের ক্ষেত্রে। বিনুনি বা খোঁপা করা ছাড়া অন্য উপায়ও আছে। চুল খুলে রাখতে পারেন। খোলা চুল যেকোনো পোশাকের সাথে যাবে।তাছাড়া দুপাশ থেকে চুল নিয়ে ক্লিপ দিয়ে হালকা করে বেঁধে দিয়ে দেখতে পারেন।

সাজগোজ সম্পূর্ণ নিজস্ব ব্যপার।ব্যস্ত সময়ের ভিড়ে শুধু একটু বলতে চাই। মেয়েদের আভ্যন্তরীণ সৌন্দর্যই আসল। যা কিনা মেকাপের মোড়কে ধরা যায় না। বাহ্যিক সৌন্দর্য আভ্যন্তরীণ সৌন্দর্যকে বিকশিত করে থাকে মাত্র।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন