শিরোনাম :

স্বাস্থ্যকর ত্বকের জন্য ঘরোয়া ফেস মাস্ক


রবিবার, ১১ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৪ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

স্বাস্থ্যকর ত্বকের জন্য ঘরোয়া ফেস মাস্ক

ডেস্ক: সারা দিনের কাজের চাপে ত্বকের যত্ন নেওয়া হয় না কারো। ফলত বাজারচলতি পণ্য হিসেবে নানা জিনিস ব্যবহার করি আমরা। তবে বাড়িতে বানানো কিছু ফেস মাস্ক সারা রাত মুখে রেখে দিলে তা আপনার ত্বকের হারিয়ে যাওয়া ঔজ্জ্বল্য ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করবে। এখানে দেখে নিন সহজ কিছু ঘরোয়া ফেস মাস্ক বানানোর উপায়।

রাতের হলুদ এবং দুধের ফেস মাস্ক

কাঁচা দুধ একটি চমৎকার অ্যান্টি ট্যান এজেন্ট। রোদে পোড়া চামড়া ঠিক করতে এটি একটি চমৎকার ঘরোয়া প্রাকৃতিক প্রতিকার। কাঁচা দুধে ল্যাকটিক অ্যাসিড থাকে যা ত্বকের রঙ ফেরাতে সাহায্য করে। হলুদে অ্যান্টিসেপটিক এবং অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে বলে ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করে।

হলুদে অ্যান্টিসেপ্টিক ও অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল বৈশিষ্ট্য আছে যা ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়

উপকরণ: ৪ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো এবং ৫-৬ টেবিলচামচ কাঁচা দুধ।

পদ্ধতি: একটি বাটি নিন এবং এতে হলুদ ও কাঁচা দুধ মেশান। পেস্ট বানিয়ে আপনার আঙ্গুলের সাহায্যে মুখ এবং ঘাড়ে প্রয়োগ করুন। সারা রাত ছেড়ে দিন। পরদিন সকালে ঠান্ডা জল দিয়ে আপনার মুখ ধুয়ে ফেলুন। ভাল ফলাফলের জন্য সপ্তাহে ৩-৪ বার প্রয়োগ করুন।

রাতের ডিমের সাদা অংশের ফেস মাস্ক

নরম পুষ্ট ত্বক পেতে চাইলে ব্যবহার করুন ডিমের সাদা অংশ। ডিমের সাদা অংশে থাকা ভিটামিন এ চামড়া দৃঢ় করে, বার্ধক্যের ছাপ কমায়।

ডিমের সাদা অংশ ভিটামিন এ সমৃদ্ধ, যা চামড়া দৃঢ় করে

উপাদান: একটি ডিমের সাদা অংশ

পদ্ধতি: একটি বাটিতে ডিমের সাদা অংশ যোগ করুন। আপনার মুখে সমানভাবে সাদা অংশটি প্রয়োগ করুন। এটি শুকিয়ে যেতে প্রায় ১৫ মিনিট সময় লাগবে। আপনি সারা রাত রেখে দিতে পারেন বা ধুয়েও নিতে পারেন। সারা রাত রেখে দিলে সকালে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন। ভালো ফলাফলের জন্য এটি সপ্তাহে ২-৩ বার ব্যবহার করুন।

রাতের ওটস ও মধুর ফেস মাস্ক

ওটসের মধ্যে স্যাপোনিন নামের যৌগ থাকে, যা প্রাকৃতিক ক্লিনজার হিসাবে কাজ করে। ওটস আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নেয় এবং ব্রণ হ্রাস করতে সহায়তা করে। এর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং প্রদাহ বিরোধীজনক বৈশিষ্ট্য ত্বকের মৃত কোষ অপসারণ করতে সাহায্য করে। মধু একটি চমত্কার ময়শ্চারাইজার এবং শুষ্ক ত্বকে বিস্ময়কর কাজ করে। যদি আপনার হাঁটু এবং কনুই শুকনো হয়, ঠোঁট ফাটে তাহলে মধু প্রয়োগ করুন।

ওটস আপনার ত্বকের অতিরিক্ত তেল শুষে নেয় এবং ব্রণ হ্রাস করতে সহায়তা করে

উপকরণ: ১ টেবিলচামচ ওটস এবং ১ টেবিল চামচ মধু

পদ্ধতি: একটি বাটিতে ওটস এবং মধু মেশান। পাঁচ মিনিটের জন্য রেখে দিন, যতক্ষণ না ওটস নরম হয়ে যায়। এবার ওটস গুঁড়ো করে নিয়ে ভালো করে মেশান। আপনার মুখে সমানভাবে প্রয়োগ করুন। সারা রাত মুখেই রাখুন। এটি ত্বকের আর্দ্রতা বাড়াবে এবং সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে হওয়া ত্বকের ক্ষতির মেরামত করবে।

সারা রাতের টমেটো ফেস মাস্ক

টমেটো অ্যাস্ট্রিঞ্জেন্ট হিসাবে কাজ করে। এটি ব্রণ প্রবণ চামড়ার জন্য ভাল। এটি ত্বককে পুনরুজ্জীবিত করতে সহায়তা করে এবং রোদে পোড়া চামড়ার জন্য দুর্দান্ত কাজ করে।

টমেটো ব্রণ প্রবণ চামড়ার জন্য ভাল।

উপকরণ: মাঝারি আকারের টমেটো এবং ২ টেবিল চামচ কাঁচা দুধ।

পদ্ধতি: একটি মাঝারি আকারের টমেটো নিন, এটি দুই ভাগে কাটুন। একটি বাটির মধ্যে কাঁচা দুধ প্রায় ২ টেবিল চামচ নিন। এখন, টমেটোকে দুধের বাটিতে ডুবিয়ে দিন এবং আপনার মুখের উপর এটি প্রয়োগ করুন। একবার স্তর শুকিয়ে গেলে পুনরাবৃত্তি করুন এবং দ্বিতীয় স্তর প্রয়োগ করুন। টমেটো মিশ্রিত কাঁচা দুধের পেস্ট সারা রাত মুখে রেখে দিন এবং সকালে পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

ওটস এবং মধুর ফেস মাস্ক কিছুটা সমস্যার হতে পারে। ডিমের সাদা অংশের ফেস মাস্কে গন্ধ লাগতে পারে। সেক্ষেত্রে খুমোতে যাওয়ার আগে ধুয়ে ফেলতে পারেন মাস্ক। অ্যালার্জি হতে পারে কিনা সেটা দেখতে ত্বকের বিশেষজ্ঞ সাথে যোগাযোগ করুন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন