শিরোনাম :

বরিশালে কির্তনখোলা গাঙ্গের জলে জ্যোস্না বিলাস


রবিবার, ৫ নভেম্বর ২০১৭, ০৫:০৬ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

বরিশালে কির্তনখোলা গাঙ্গের জলে জ্যোস্না বিলাস

শামীম আহমেদ,বরিশাল: কির্তনখোলা গাঙের জলে জ্যোসনা বিলাস উপভোগ করলেন বরিশালের প্রকৃতি প্রেমীরা। সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত কীর্তনখোলা নদীর বুকে জ্যোসনা উপভোগ হয় গানে কবিতায় বাঁশির সুর মুর্ছনায়। পূর্নিমার জ্যোসনা রাতে ঋতু ভিত্তিক ব্যাতিক্রমী আয়োজনে ছিল বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র,বরিশাল পাঠচক্র শাখা। প্রায় দুইশত প্রকৃতিপ্রেমী অংশ নেয় জ্যোসনা বিলাস উদযাপনে।

শনিবার সন্ধ্যায় বিশাল এক ট্রলার অংশগ্রহনকারীদের ভাসিয়ে চলে নগরীর পাশ দিয়ে বহমান কীর্তনখোলার বুকে। হেমন্তের নীল আকাশে নিজেকে উজার করা পূর্ন চাঁদের জ্যোসনা রাতকে প্রানবন্ত করে তোলে ‘আজ মিলন তিথির র্পর্নিমা চাঁদ মোছায় অন্ধকার’ ‘জ্যোসনা ভেজা রাতে আমরা মিলেছি এক সাথে’ প্রভৃতি গানে গানে।

প্রবীণ সংস্কৃতিজন মুকুল দাসের আলোচনায় রাস পূর্নিমা,কোজাগরি পূর্নিমা,দোল পূর্নিমা,রাখী পূর্নিমা,মাঘী পূর্নিমা,বুদ্ধ পূর্নিমা,গরু পূর্নিমা,জৈষ্ঠী পূর্নিমা,ঝুলন পূর্নিমা, ভাদ্রী পূর্নিমা,কৌমুদী পূর্নিমা ও আঁততায়ী জ্যোসনার ব্যাখ্যা অনুষ্ঠানকে করে তোলে শিক্ষনীয়।

মাঝেমধ্যে কবি হেনরী স্বপন, সাংবাদিক স্বপন খন্দকার, বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র,বরিশালের সমন্বয়কারী বাহাউদ্দিন গোলাপ,অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, বিকাশ চক্রবর্তী,শিক্ষা কর্মকর্তা জামাল উদ্দিনের শুভেচ্ছা জ্ঞাপনে করতালিতে মুখরিত হয় অনুষ্ঠান স্থল।

মোড়ক উন্মোচন হয় ঋতুভিত্তিক ভাজ পত্রিকা ‘বাতায়ন’। শিল্পীঅদিতি,সুপন,নিপা,পান্থ,সঞ্জয়,পূর্বা, ছোটন, পিযুষ,আসিফ,তানজিল এর গাওয়া রবীন্দ্রগীতি, লালন, ভাটিয়ালী, লোকগীতি, দেহতাত্ত্বিক,আধুনিক গান ও বাঁশির সুর মুর্ছনা সমন্বয় ঘটায় প্রকৃতি ও পরিবেশকে। বিনোদনে আরো একটি মাত্রা যোগ হয় কবিতা আবৃত্তি। তানজিলের বাঁশি নিক্কনের বাজনা মনে দোল দেয় সমবেতদের।

অনষ্ঠানে চিড়া ভাজা, খুড়মা, ভাঁপা পিঠা আর খিচুরী আপ্যায়ন স্বাদ আনে বাঙালিয়ানার। পোর্টরোড সাততালা ঘাট থেকে কীর্তনখোলার বুকে ভেসে বেড়ানো জ্যোসনা বিলাসীরা মধ্যরাতে গন্তব্যে ফেরেন সুরধারায়।

 

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন