শিরোনাম :

মশা মারার অভিনব ফাঁদ!


রবিবার, ১২ নভেম্বর ২০১৭, ০২:১১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

মশা মারার অভিনব ফাঁদ!

ডেস্ক প্রতিবেদন: মশার কামড়ে অতিষ্ঠ হয়ে অনেকেই নানান ধরণের কৌশল গ্রহণ করে থাকেন।এবার মালয়েশিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয় মশা মারার অভিনব ফাঁদ তৈরি করেছে।

তাদের আবিষ্কৃত ফাঁদটি দেখে প্রথমে মনে হতে পারে, পার্কে সৌর বিদ্যুতের সাহায্যে কোনও বাতি জ্বলছে।

আসলে ওই আলোগুলো যখন জ্বলে, তখন তা থেকে নির্গত হয় কম ঘনত্বের কার্বন ডাই-অক্সাইড।আর সেটাই ওই আলো-ফাঁদের দিকে টেনে আনে মশাদের।আলোর নীচে রাখা জালে মশা টপাটপ পড়বে আর মরবে।

মালয়েশিয়ার একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সৌর বিদ্যুৎ নিয়ে কাজ করা প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মালয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই প্রযুক্তি এতদিন পরীক্ষামূলক স্তরে ছিল। কিন্তু পরীক্ষায় তা পাশ করার পরে এখন সেই প্রযুক্তিকে ব্যবহার করছে তারা।

মানুষের নিঃশ্বাসের সঙ্গে নির্গত হাল্কা কার্বন ডাই অক্সাই়ড এবং ঘামের সঙ্গে বেরিয়ে আসা ল্যাকটিক অ্যাসিড মশাদের আকর্ষণ করে। ওই গন্ধই মশাদের টেনে আনে মানুষের দিকে। মশার সেই চরিত্রকে কাজে লাগিয়েই মালয়েশিয়ায় তৈরি হয়েছে এই নতুন ধরনের সৌর আলো।

তবে ল্যাকটিক অ্যাসিড নয়। এ ক্ষেত্রে মশাদের টোপ হাল্কা ঘনত্বের কার্বন ডাই অক্সাইড।

কী ভাবে তৈরি হয় ওই হাল্কা ঘনত্বের কার্বন ডাই-অক্সাইড? মালয় বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকেরা দেখেছেন, আলোর অতিবেগুনি রশ্মির সঙ্গে টাইটেনিয়াম ডাই-অক্সাইডের বিক্রিয়ায় মৃদু (কম ঘনত্বের) কার্বন ডাই-অক্সাইড তৈরি হচ্ছে। তাই আলো জ্বলার কিছু ক্ষণের মধ্যেই মশারা ওই আলোর দিকে ছুটে আসছে। ’’

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন