শিরোনাম :

শোলাকিয়ায় বৃহৎ জামাত অনুষ্ঠিত


বুধবার, ২২ আগস্ট ২০১৮, ১২:৩৩ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

শোলাকিয়ায় বৃহৎ জামাত অনুষ্ঠিত

কিশোরগঞ্জ: কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থায় এ বছর অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল আজহার ১৯১তম জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়ায়। দেশের বৃহত্তম ঈদগাহ হিসাবে পরিচিত এই মাঠে ঈদুল আজহার জামাতে ঈদুল ফিতরের তুলনায় মুসল্লির সংখ্যা তুলণামূলকভাবে কম হয়। নামাজের পরপরই কোরবানির আনুষ্ঠানিকতা থাকায় দূর-দূরান্তের মুসল্লিরা শোলাকিয়া ঈদগাহে নামাজে শরিক হতে পারেন না। 

তবুও বাংলাদেশ রেলওয়ে ঈদের দিন সকালে ‘শোলাকিয়া স্পেশাল’ নামে দুটি বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা নেয়। ট্রেন দুটি ভোরে ভৈরব ও ময়মনসিংহ থেকে ছেড়ে কিশোরগঞ্জ আসে এবং নামাজ শেষে মুসল্লিদের নিয়ে আবার স্ব স্ব গন্তব্যে চলে যায়। এবছরও ঈদগাহ ও এর বাইরেও কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। মাঠের চারপাশ ঘিরে রাখে পুলিশ, র্যাব, বিজিবিসহ বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহস্রাধিক সদস্য।

মাঠে স্থাপন করা হয় চারটি ওয়াচ টাওয়ার ও অসংখ্য সিসি ক্যামেরা। দুটি শক্তিশালী ক্যামেরাযুক্ত ড্রোন সারাক্ষণ মাঠজুড়ে চক্কর দেয়। মাঠে বিভিন্ন প্রবেশ পথে আর্চওয়ে ও মেটাল ডিটেক্টের দিয়ে পরীক্ষার পর মুসল্লিদের প্রবেশ করানো হয়। একমাত্র জায়নামাজ ছাড়া অন্য কিছু নিয়ে নিয়ে মুসল্লিদের প্রবেশ করা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

প্রথানুযায়ী নামাজ শুরুর ১৫ মিনিট আগে তিনবার, ১০ মিনিট আগে দুইবার ও এক মিনিট আগে একবার বন্দুকের ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে মুসল্লিদের নামাজের প্রস্তুতির জন্য সংকেত দেওয়া হয়। নামাজ শুরুর আগে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী ও পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ। এ বছর নামাজে ইমামতি ও দোয়া পাঠ করেন মার্কাজ মসজিদের ইমাম মাওলানা হিফজুর রহমান।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন