ব্রেকিং নিউজ
চার অপারেটরকে দ্রুত গতির ইন্টারনেট সেবা ফোরজি’র লাইসেন্স হস্তান্তর
শিরোনাম :
   সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্যসেবাকে অগ্রাধিকার দিতে হবে : রাষ্ট্রপতি    প্রাথমিক সমাপনীতে শতভাগ সৃজনশীল প্রশ্নে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত    ”পরিক্ষীত পদ্বতিতেই দেশের জ্বালানি নিরপত্তা নিশ্চিত করা হবে”    কোটাপদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে রাবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন    স্মারকলিপি গ্রহণ করলেন না রাবি উপাচার্য    এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ৪ শিক্ষক গ্রেপ্তার    আন্দোলনের মুখে অচল হয়ে পড়েছে বিসিসি কার্যক্রম    সময় মতো, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে: প্রধানমন্ত্রী    সংবাদ সম্মেলনে তিনটি সুখবর দিলেন প্রধানমন্ত্রী    জামালপুরে আড়াই বছরের শিশুর বিরুদ্ধে মামলা

এখনই ৫৪ ধারা সংশোধন নয়: আইনমন্ত্রী


রবিবার, ২৯ মে ২০১৬, ০২:৪১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

এখনই ৫৪ ধারা সংশোধন নয়: আইনমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: পূর্ণাঙ্গ রায়ের আগে এখনই ৫৪ ধারা সংশোধনে কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হবে না বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

রবিবার সকালে বাংলাদেশ বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে সাব-রেজিস্ট্রারদের বিশেষ প্রশিক্ষণ কোর্সের সনদ বিতরণী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, অ্যাটর্নি জেনারেল অফিসের মাধ্যমে আমি শুনেছি, এই মামলা খারিজ করার সময় আপিল বিভাগ কিছু মডিফিকেশন করবেন। সেই মডিফিকেশন না আসা পর্যন্ত আমরা কোনো পদক্ষেপ নেব না।

উল্লেখ্য, ফৌজদারি কার্যবিধির ৫৪ ধারা সংশোধন বিষয়ে হাইকোর্টের রায়ে বেশ কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়। হাইকোর্টের সেই রায়ের বিরুদ্ধে সরকারের করা আপিল সম্প্রতি খারিজ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ।

জাবেদ আলী ও আব্দুল জলিল ভুল বিচারে সাজা খাটার ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘দুটো ঘটনা আমি খবরের কাগজে দেখেছি। এগুলো নিঃসন্দেহে দুঃখজনক। বিচার বিভাগের ভুলত্রুটি হবে না, এমন নিশ্চয়তা তো আমি দিতে পারি না। কারণ এটা তো মানুষচালিত। কিন্তু চেষ্টা করা হবে এ রকম ঘটনার যেন পুনরাবৃত্তি না হয়।’

আইনমন্ত্রী বলেন, ‘আপনাদের কাছে আমার অনুরোধ থাকবে আপনারা ইনভেস্টিগেটিভ রিপোর্টিং করেন। এমন ঘটনা যদি চোখে পড়ে আপনারা নিশ্চয়ই তুলে আনবেন। তাহলে আমি তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা নেব। এতটুকু আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে পারি।’

এক্ষেত্রে বিচারকদের কোনো ব্যর্থতা থাকলে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘নিশ্চয়ই, এটাই স্বাভাবিক। কর্তব্য পালনে ব্যর্থ হলে ডিপার্টম্যান্টাল প্রসিডিউর হবে এবং সেখানে যদি কোনো ফৌজদারি অপরাধ হয়ে থাকে তাহলে মামলা হবে। আর দেওয়ানি অপরাধ হয় সেখানেও মামলা হবে।’

এসএ

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন