শিরোনাম :

রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনে আন্তর্জাতিক বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি


রবিবার, ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ০৫:০২ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

রোহিঙ্গা সঙ্কট নিরসনে আন্তর্জাতিক বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি

ডেস্ক প্রতিবেদন: মিয়ানমারে অব্যাহত বর্বর নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা যাতে নিজ দেশে মর্যাদা ও নিরাপত্তার সঙ্গে বাস করতে পারে এবং রোহিঙ্গা শরণার্থীরা যাতে নিজেদের আবাসভূমিতে ফিরতে পারে- তা নিশ্চিত করতে মুসলিম বিশ্ব ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

রোববার কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানায় ইসলামী রাষ্ট্রগুলোর শীর্ষ সংগঠন ওআইসির প্রথম বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি বলেন, রোহিঙ্গাদের সুরক্ষার জন্য আমি সবার দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাই। নাগরিকত্বের অধিকারসহ সব ধরনের অধিকার থেকে তারা বঞ্চিত। এই জনগোষ্ঠী অস্তিত্বের সঙ্কট, নিষ্ঠুরতা এবং উৎখাতের শিকার।

আবদুল হামিদ বলেন, হাজারে হাজারে রোহিঙ্গা সীমান্ত পার করে ঢুকে পড়ায় বাংলাদেশ এ সমস্যায় সরাসরি আক্রান্ত। বাংলাদেশ একমাত্র মানবিক কারণে তাদের আশ্রয় দিচ্ছে। এই সমস্যাকে এমনভাবে সমাধান করতে হবে, যাতে রোহিঙ্গারা নিজের ভূমি রাখাইনে নিরাপত্তা এবং মর্যাদার সঙ্গে ফিরে গিয়ে থাকতে পারে।

এদিকে প্রযুক্তি সম্মেলনের ফাঁকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে রোহিঙ্গা ইস্যুতে কথা বলেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ।

তিনি এ সময় বাংলাদেশে আসা শরণার্থীদের মিয়ানমার সীমান্তের অংশে জাতিসংঘের তত্ত্বাবধানে একটি ‘সেইফ জোনে’ আশ্রয়ের ব্যবস্থার জন্য আন্তর্জাতিক বিশ্বের প্রতি আহ্বান জানান।

বৈঠক শেষে রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব মো. জয়নাল আবেদীন সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন।

প্রেস সচিব বলেন, বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের একটি জায়গায় আশ্রয় দেয়ার জন্য উপযুক্ত স্থান খুঁজছে বলে বৈঠকে এরদোগানকে জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

এ সময় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে আলোচনার জন্য ফোন করায় এবং তুরস্কের ফার্স্ট লেডি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রোহিঙ্গাদের দুর্দশা দেখতে বাংলাদেশ সফর করায় ধন্যবাদ জানান রাষ্ট্রপতি।

একইসঙ্গে রোহিঙ্গাদের বিষয়ে ওআইসির চলমান সম্মেলনে একটি বিশেষ অধিবেশনের আয়োজন করার জন্যও তুর্কি প্রেসিডেন্টকে ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশের রাষ্ট্রপ্রধান।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন