শিরোনাম :

শুধু জায়নামাজ আনার অনুরোধ: আইজিপি


রবিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১০:০২ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

শুধু জায়নামাজ আনার অনুরোধ: আইজিপি

ঢাকা:পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, জাতীয় ঈদগাহে নামাজ পড়তে সঙ্গে করে শুধু জায়নামাজ আনা যাবে। তবে বৃষ্টি হলে ঈদের জামাতে ছাতাও নিয়ে আসা যাবে।

রোববার বিকাল সোয়া ৫টার দিকে জাতীয় ঈদগাহের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শনে এসে তিনি এসব কথা বলেন।

জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, বৃষ্টি হলে ঈদের জামাতে ছাতা নিয়ে আসা যাবে। আবহাওয়া ভালো থাকলে শুধুমাত্র জায়নামাজ সঙ্গে আনার অনুরোধ করছি। ঈদকে কেন্দ্র করে কোনো ধরণের নিরাপত্তা হুমকি নেই বলেও জানান আইজিপি।

জাতীয় ঈদগাহের নিরাপত্তা পরিস্থিতি পরিদর্শন করে আইজিপি বলেন, ঈদগাহের বাইরে ও ভেতরে ৩-৪ স্তরের নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চে (এসবি) ও ডিএমপির সদস্যরা সাদা পোশাকে নিরাপত্তা দেবে। ঈদগাহের বাইরে গোয়েন্দারা থাকবে।

তিনি বলেন, মুসুল্লিদের নিরাপত্তায় ঈদগাহের চারপাশে ৮৫টি সিসিটিভি লাগানো হয়েছে। এবারই প্রথম ঈদগাহের ছাদের ত্রিপলের ওপরে বেশ কয়েকটি সিসিটিভি লাগানো হয়েছে। ক্যামেরার ফুটেজ পর্যবেক্ষণের জন্য রয়েছে কন্ট্রোল রুম।

রাষ্ট্রপতিসহ ঈদগাহে আগত ভিভিআইপি ও ভিআইপিদের নিরাপত্তায় বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এবারের ঈদুল আজহাকে কেন্দ্র করে কোনো ধরণের নিরাপত্তা হুমকি আছে কিনা- সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, সুনির্দিষ্ট কোনো হুমকি নেই, তবে সব ধরনের ঝুঁকির বিষয় মাথায় রেখেই নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

রোববার বিকাল সোয়া ৫টায় আইজিপি ঈদগাহে আসেন। তিনি পুরো ঈদগাহ প্রাঙ্গণ ঘুরে দেখেন। এ সময় ট্রাফিক পুলিশ ও রমনা বিভাগের পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আইজিপিকে নিরাপত্তা পরিকল্পনার বিষয়ে ব্রিফ করেন। আইজিপি নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ করে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

এর আগে তিনি দুপুর তিনটার দিকে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন করেন।

এ সময় আইজিপি বলেন, ট্রেনে বাড়িফেরা যাত্রীদের নিরাপত্তায় আসন্ন ঈদুল আজহায় ট্রেনে বাড়িফেরা যাত্রীদের নিরাপত্তায় দুই হাজার ৩০০ পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। যাত্রীরা সন্তুষ্টি নিয়ে বাড়ি ফিরছেন। ট্রেনের সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও নিরাপত্তা ব্যবস্থা অত্যন্ত সন্তোষজনক। যাত্রাপথে অজ্ঞান ও মলমপার্টির সদস্যদের তৎপরতা বন্ধেও মোতায়েন রয়েছে পুলিশ।

আইজিপি মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, এবার ঈদে বিভিন্ন পথে প্রায় এক কোটি মানুষ ঢাকা ছেড়ে যাচ্ছেন। সারা দেশ থেকে পশুবাহী ট্রাক ঢাকার দিকে আসছে। এটা আমাদের জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ। তবে সবাই সাচ্ছন্দ্যে বাড়ি ফিরতে পারছে। নদীর স্রোতের কারণে কয়েকটি ফেরি সময়মত চলাচল করতে পারেনি। এছাড়া বাকি সব ঠিকই আছে।

এর আগে দুপুর ২টা ৫৫ মিনিটে কমলাপুর রেলস্টেশনে এসে স্টেশন এলাকা এবং প্ল্যাটফর্ম নম্বর ২ ও ৩ ঘুরে ঘুরে দেখেন আইজিপি। তিনি যাত্রী ও দায়িত্বরত স্কাউট সদস্যদের সঙ্গে কথা বলেন। এসময় প্ল্যাটফর্ম নম্বর ২ এ দাঁড়িয়ে থাকা ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ রুটের জামালপুর কমিউটার ট্রেনের যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন