শিরোনাম :

প্রশ্ন ফাঁস রোধে পরীক্ষা পদ্ধতি পরিবর্তনের বিষয়টি বিবেচনাধীন: শিক্ষামন্ত্রী


রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৭:৩৫ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

প্রশ্ন ফাঁস রোধে পরীক্ষা পদ্ধতি পরিবর্তনের বিষয়টি বিবেচনাধীন: শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সংসদকে জানিয়েছেন, ২০১৯ সালে অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় এখন পর্যন্ত কোনো ধরনের প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনা ঘটেনি। প্রশ্ন ফাঁস রোধে পরীক্ষা পদ্ধতি পরিবর্তনের বিষয়ে সরকারের কাছে বেশকিছু প্রস্তাব রয়েছে। প্রস্তাবগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। বাস্তবতার নিরিখে পরীক্ষা পদ্ধতি পরিবর্তনের বিষয়টি বিবেচনা করা হবে।

রবিবার সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে চট্টগ্রাম-১১ আসনের সরকার দলীয় এমপি এম. আবদুল লতিফের এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা জানান।

বিরোধী দল জাতীয় পার্টির (জাপা) সংসদ সদস্য পীর ফজলুল রহমান মিসবাহর এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের জন্য তিনি ইতোমধ্যেই অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন। অর্থ প্রাপ্তি সাপেক্ষে ধাপে-ধাপে দুই হাজার প্রতিষ্ঠানকে এমপিওভুক্ত করা হবে। খুব দ্রুত এই কাজটি শুরু করতে পারবেন বলে তিনি আশা ব্যক্ত করেন। একই প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা নিয়ে গত সংসদে আমি নিজেও প্রশ্ন করেছিলাম। ইতোমধ্যে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অনলাইনে তাদের প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে কতগুলো ক্রাইটেরিয়া সম্পর্কে তথ্য দিয়েছে। প্রায় সাড়ে ৯ হাজার প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন পাওয়া গেছে। সেখান থেকে দুই হাজার প্রতিষ্ঠানকে যোগ্য হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে। এরমধ্যে অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে অর্থ প্রাপ্তি সাপেক্ষে এমপিওভুক্ত করা হবে।

আরেক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে দীপু মনি বলেন, কিছু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুব অল্প সময়ে এমপিভুক্ত হয়েছে। আবার কিছু প্রতিষ্ঠান বছরের পর বছর অপেক্ষা করেও এমপিও পায়নি। এখানে একটি ন্যায্যতার প্রশ্ন রয়েছে। এখন আমরা যোগ্যতার ভিত্তিতে এমপিওভুক্ত করার উদ্যোগ নিয়েছি। বিভিন্ন নির্বাচনী এলাকাভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আমরা চিহ্নিত করছি, সেখানে যেন ন্যায্যতার ভিত্তিতে এমপিওভুক্ত হতে পারে সেই ব্যাপারে আমরা সংসদ সদস্যদেরও সহযোগিতা চাই।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন