শিরোনাম :

গেজেটের গোড়াতেই গলদ: আমীর-উল ইসলাম


মঙ্গলবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৫:৪২ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

গেজেটের গোড়াতেই গলদ: আমীর-উল ইসলাম

ডেস্ক প্রতিবেদন: নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃংখলা সংক্রান্ত বিধিমালা গেজেট আকারে প্রকাশের মাধ্যমে বিচারকদের নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির ওপর থাকছে না। তাদের নিয়ন্ত্রণ চলে যাচ্ছে আইন মন্ত্রণালয়ের অধীন। সরকারের এমন সিদ্ধান্তের ঘোর বিরোধীতা করে ক্ষমতা প্রতিস্থাপনের বিষয়টিকে গেজেটের ‘গোড়াতেই গলদ’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন ব্যারিস্টার এম. আমীর-উল ইসলাম।

১২ ডিসেম্বর মঙ্গলবার উচ্চ আদালত আইনজীবী সমিতির ভবনে অবস্থিত নিজ চেম্বারে প্রকাশিত গেজেট বিষয়ে এই প্রবীণ ব্যারিস্টার এ মন্তব্য করেন।

আমীর-উল ইসলাম বলেন, ‘জুডিশিয়াল সার্ভিস কমিশনকে সরকার আইন মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিয়ে এসেছে। সংবিধানের ১১৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বিধি করা উচিত ছিলো, কিন্তু সরকার তা না করে ১৩৩ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী করেছে। ১৩৩ বিধি প্রযোজ্য হয় প্রজাতন্ত্রের সরকারি কর্মচারীদের জন্য। নিম্ন আদালত সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান, তাদেরকে সরকারী বা গণপ্রজাতন্ত্রের কর্মচারি হিসেবে অর্ন্তভূক্ত করা ঠিক হয়নি।’

তিনি আরো বলেন, ‘সংবিধান যে ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির ওপর ন্যাস্ত করেছে, সেই ক্ষমতা রাষ্ট্রপতির পরিবর্তে আইনমন্ত্রণালয় প্রতিস্থাপাতি হতে পারে না।’

আলোচিত মাসদার হোসেন মামলার রায়ের আলোকে এবং সংবিধান অনুযায়ী বিচার বিভাগের স্বাধীনতা, স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট নিয়ে অধস্তন আদালতকে নিয়ন্ত্রণের জন্য রাষ্ট্রপতিকে ক্ষমতা দেওয়া হয়। উচ্চ আদালতের সঙ্গে পরামর্শ করে রাষ্ট্রপতি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবেন। কিন্তু এই গেজেট প্রকাশের মাধ্যমে সে জায়গা থেকে সরে গেছে সরকার। এর মাধ্যমে অধস্তন আদালতের নিয়ন্ত্রণ আইন মন্ত্রণালয়ের অধীনে থেকে গেছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন