শিরোনাম :

ছায়েদুুল হক, গোলাম মোস্তাফা, মেয়র আনিসুল ও মহিউদ্দিনের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব


রবিবার, ৭ জানুয়ারি ২০১৮, ০৭:০৭ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

ছায়েদুুল হক, গোলাম মোস্তাফা, মেয়র আনিসুল ও মহিউদ্দিনের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব

ডেস্ক প্রতিবেদন: ২০০১ সালের জাতীয় নির্বাচনে পরিকল্পিতভাবে আওয়ামী লীগকে হারানো হয় অভিযোগ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সেই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের যে কজন নিবেদিত নেতা নির্বাচিত হয়েছিলেন; তাদের মধ্যে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগরের ছায়েদুল হক অন্যতম।

রোববার বিকালে জাতীয় সংসদে প্রয়াত মন্ত্রী ছায়েদুুল হক, গোলাম মোস্তাফা, মেয়র  আনিসুল হক ও মেয়র মহিউদ্দিননের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাবে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, চারজন পুলিশ সদস্য নিহত এবং অগ্নিসন্ত্রাসের কবলে বহুলোক নিহত হন গাইবান্ধায়। সে আসনে এমপি লিটনের নিহতের হওয়ার পর গোলাম মোস্তফা সেখান নির্বাচিত হন। রাজনীবীদ গণমানুষের নেতা হলে নির্বাচন করাতে যে টাকা লাগে না তার দৃষ্টান্ন তিনি দেখিয়েছেন।

সাবেক মন্ত্রী ছায়েদুল হকসহ মেয়র মহিউদ্দিন, মেয়র আনিসুল হক, গোলাম মোস্তাফা তারা তাদের কাজের মাধ্যমে জনগণের ভালোবাসা অর্জন করে নিয়েছেন। তারা তাদের রাজনৈতিক বর্ণাঢ্য জীবনে কাজের মাধ্যমে বেঁচে থাকবেন বাংলার মানুষের মাঝে। তাদের রুহের মাগফিরাত কামনা করার পাশাপাশি শোক সন্তপ্ত পরিবারে প্রতি গভীর সমবেদনা জানান প্রধানমন্ত্রী।

মৎস্য ও প্রাণী সম্পদমন্ত্রী ছায়েদুল হকের নেতৃত্বে ইলিশের উৎপাদন বেড়েছে। আমরা মৎস্য উৎপাদনে বিশ্বে ৪র্থ স্থান অর্জন করেছে বলে তিনি সংসদে জানান।

শোক প্রস্তাবে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেন, আমি ছায়েদুল হককে ১৯৬৮ সাল থেকে চিনি। আমার বাবার সঙ্গে রাজনীতি করতেন। ১৯৭৫ সালে হত্যা করার পর ১৫ সেপ্টম্বর খুনী মোশতাকের বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ হয়ে বিরোধীতা করেন তিনি।

তাজুল ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরা একই বিষয়ের পড়তাম। সুতরাং তার সঙ্গে আমার অনেক দিনের চেনা জানা। তিনি ছিলেন সৎ এবং বিনয়ী মানুষ।

তোফায়েল আহমেদ শোক প্র্রকাশ করে বলেন, তিনি আমাদের মন্ত্রিসভার সফল সদস্য ছিলেন। ছাত্রলীগের সদস্য থেকে আওয়ামী লীগের জেলার সমাজসেবা সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। তিনি মোট পাঁচবার সাংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

মেয়র মহিউদ্দিন ও মেয়র আনিসুল হকের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন তাদের কাজের মধ্যে তারা বেঁচে থাকবেন মানুষের মাঝে।

মো. নাসিম প্রয়াত ছায়েদুল হক সম্পর্কে বলেন, তিনি ছিলেন একজন সৎ নিষ্ঠাবান ব্যাক্তি ছিলেন। তার সম্পর্কে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে তাকে হীন করার চেষ্টা করা হয়েছে। জীবিতকালে তাকে ছোট করার চেষ্টা করা হয়েছে। আমরা সবাই তার প্রতি আস্থা রেখে তার সঙ্গে কাজ করেছি।তার নির্বাচনী এলাকায় গিয়ে দেখেছি তার জনপ্রিয়তার ঢল।

বিদেহী আত্নার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে সংসদে ১ মিনিট নিরাবতা পালন করার পর মোনাজাত করা হয়।

 

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন