শিরোনাম :

'জাতীয় ঐক্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন'


শনিবার, ১৯ মে ২০১৮, ১১:২১ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

'জাতীয় ঐক্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন'

ঢাকা: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম দেশের চরম সংকটে জাতীয় নেতারাই নেতৃত্ব দেবেন। এ জন্য জাতীয় ঐক্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।

শনিবার ঢাকার লেডিস ক্লাবে রাজনীতিবিদদের সম্মানে বিএনপি আয়োজিত ইফতার মাহফিলে তারা এ আহ্বান জানান তিনি।

রাজনীতিবিদদের স্বাগত জানিয়ে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এই ইফতারের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকেন ১৬ কোটি মানুষের প্রিয় নেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া। তিনি আমাদের মাঝে উপস্থিত নেই। এই সরকারের ষড়যন্ত্রমূলক মিথ্যা মামলায় কারাগারের অন্ধ প্রকোষ্ঠে তাকে ইফতার করতে হচ্ছে। আমরা সবাই সে জন্য আজকে ভারাক্রান্ত।’

তিনি বলেন, ‘দেশের এই দুঃসময়ে সবার প্রত্যাশা জাতীয় নেতারা মূল্যবান অবদান রাখবেন এবং সংকট উত্তরণে তারা নেতৃত্ব দেবেন। এখন জাতীয় ঐক্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন। আসুন আমরা ঐক্যবদ্ধ হই, মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করি।’

কারাবন্দি খালেদা জিয়ার চেয়ারটি ফাঁকা রেখেই বদরুদ্দোজা চৌধুরীসহ রাজনীতিবিদদের নিয়ে ইফতার করেন বিএনপি নেতারা।

মঞ্চে ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও বিকল্পধারার সভাপতি অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরীসহ স্থায়ী কমিটির সদস্যরা ও ২০ দলীয় জোটের শীর্ষ নেতারা।

অতিথি সারিতে বসে ইফতার করেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) আসম আবদুর রব, তার স্ত্রী তানিয়া রব, সাধারণ সম্পাদক আবুল মালেক রতন, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিকল্পধারার সাংগঠনিক সম্পাদক ওমর ফারুক।

বিএনপি নেতাদের মধ্যে ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমিরউদ্দিন সরকার, লে. জে (অব.) মাহবুবুর রহমান, ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, বরকতউল্লাহ বুলু, মোহাম্মদ শাহজাহান, শামসুজ্জামান দুদু, এজেডএম জাহিদ হোসেন, আহমেদ আজম খান, নিতাই রায় চৌধুরী, শওকত মাহমুদ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমানউল্লাহ আমান, মিজানুর রহমান মিনু, ফরহাদ হালিম ডোনার, যুগ্ম মহাসচিব মাহবুবউদ্দিন খোকন, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, বিলকিস জাহান শিরিন, শামা ওবায়েদ, কেন্দ্রীয় নেতা শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, শিরিন সুলতানা, ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, ফাওয়াজ হোসেন শুভ, এবিএম মোশাররফ হোসেন, আবদুস সালাম আজাদ, শহিদুল ইসলাম বাবুল, তাইফুল ইসলাম টিপু, মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ, মাহমুদ হাসান খান বাবু, কাজী আবুল বাশার, শায়রুল কবীর খান প্রমুখ।

এ ছাড়াও খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়রপ্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী নজরুল ইসলাম মনজুও ইফতারে ছিলেন।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন