শিরোনাম :

'যত ষড়যন্ত্রই হোক, যথাসময়ে নির্বাচন হবেই'


শুক্রবার, ১৭ আগস্ট ২০১৮, ০৬:৪৫ অপরাহ্ণ, বাংলাপ্রেস ডটকম ডটবিডি

'যত ষড়যন্ত্রই হোক, যথাসময়ে নির্বাচন হবেই'

ঢাকা: ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, যত ষড়যন্ত্রই হোক, যথাসময়ে আগামী নির্বাচন অবশ্যই হবে। আল্লাহর রহমতে দুনিয়ার কোনো শক্তি নেই এই নির্বাচনকে ঠেকাতে পারে।

২০১৪ সালে পারে নাই, এবারও তারা পারবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আগামী নির্বাচনে ১৪ দল বিজয় অর্জন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

শুক্রবার রাজধানীর ইন্সটিটিউট অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সে ১৪ দল আয়োজিত ‘১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায়’ তিনি এসব কথা বলেন।

জাতির জনকের অসমাপ্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণের জন্য আগামী জাতীয় নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সাংবিধানিক শক্তির গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান এ রাজনীতিবিদ।

নাসিম আরও বলেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সরকারের অধীনেই নির্বাচন হবে এবং জনগণ যে রায় দেবে, সে রায় আমরা মেনে নেব। নির্বাচন নিয়ে আর কোনো ষড়যন্ত্র আমরা দেখতে চাই না।

আগামী ডিসেম্বর বিজয়ের মাসে নির্বাচন হবে উল্লেখ করে সে অনুযায়ী নির্বাচনী প্রক্রিয়াকে এগিয়ে নিতে নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানান এ নেতা।

তিনি বলেন, ১৪ দল মাঠে-ময়দানে আপনাদের সহযোগিতা করবে। নির্বাচন করার অধিকার সবার আছে। কেউ যদি নির্বাচন করতে চায় অবশ্যই করতে পারবে। সংবিধানের বাইরে আমরা যাব না। সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। কোনো তত্ত্বাবধায়ক সরকারের ফর্মুলা এ দেশে চলবে না, ওটা ব্যর্থ হয়ে গেছে।

মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভা পরিচালনা করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

আরও বক্তব্য রাখেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ-একাংশ) শরীফ নুরুল আম্বিয়া, জাতীয় পার্টি জেপির মহাসচিব শেখ শহিদুল ইসলাম, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, তরিকত ফেডারেশনের নজিবুর বশর মাইজভান্ডারী, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ডা.ও য়াজেদুল ইসলাম, সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, গণআজাদী লীগের এস কে শিকদার, বাসদের রেজাউর রশিদ খান, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

এতে শরীফ নুরুল আম্বিয়া বলেন, আগামীতে সেই সংসদীয় ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করার জন্য সবাইকে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকতে হবে। আগামী নির্বাচনের মধ্য দিয়ে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার যে রাজনীতি সে রাজনীতিকে শক্তিশালী করতে হবে।

শেখ শহিদুল ইসলাম বলেন, ‘বাংলাদেশের সাংবিধানিক গণতন্ত্রের ধারাকে নস্যাৎ করতে পাকিস্তানপন্থী গণতন্ত্রের শত্রুরা চক্রান্ত করছে। এগুলোকে আমাদের বানচাল করতে হবে। বাংলাদেশ গড়ার জন্য ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

শাহাদাত হোসেন বলেন, আগামী নির্বাচনে আমাদের চূড়ান্ত লড়াই, অস্তিত্বের লড়াই হবে। এই লড়াইয়ে জিততে হবে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ

মন্তব্য করুন